পাকিস্তানকে হারাতে এক ঘণ্টাও লাগল না

0
84

 

কেপটাউন টেস্টে পাকিস্তানের বিপক্ষে এক দিন হাতে রেখেই হেসেখেলে জয় তুলে নিল দক্ষিণ আফ্রিকা

বাবর আজম, আসাদ শফিক ও শান মাসুদের চওড়া ব্যাটের কল্যাণে কাল ইনিংস ব্যবধানে হার এড়াতে পেরেছিল পাকিস্তান। কিন্তু নির্ভেজাল হার এড়ানো যায়নি। কাল পাকিস্তান দ্বিতীয় ইনিংসে ২৯৪ রানে অলআউট হওয়ায় জয়ের জন্য মাত্র ৪১ রানের লক্ষ্য পেয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। আজ চতুর্থ দিনে তাড়া করতে নেমে জয় তুলে নিতে প্রোটিয়াদের লাগল মাত্র ৫৯ বল।

টেস্ট ম্যাচের মেজাজ বিচারে শুধু বল নয় সময়ের সঙ্গেও পাল্লা দিয়েছে প্রোটিয়ারা। এক ঘণ্টারও কম সময়ে, বলতে গেলে প্রায় ৪৫ মিনিটেই ৯ উইকেটের জয় নিশ্চিত করেছে স্বাগতিকেরা। মজাটা হলো, এই তিল পরিমাণ লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে ব্যাটিং করেছেন প্রোটিয়াদের চার ব্যাটসম্যান! ওপেনার থিউনিস ডি ব্রুইন দলীয় ৪ রানে মোহাম্মদ আব্বাসের শিকার হলে উইকেট আসেন হাশিম আমলা। ডিন এলগার ও আমলার ব্যাটেই জয় তুলে নেওয়ার কথা ছিল প্রোটিয়াদের। কিন্তু মোহাম্মদ আমিরের একটি ডেলিভারি আমলার কনুইয়ে লাগলে রিটায়ার্ড হার্ট হতে বাধ্য হন তিনি। এরপর ফাফ ডু প্লেসি আর এলগার (২৪*) মিলে সেরেছেন জয়ের আনুষ্ঠানিকতা।

কেপটাউনে এই জয়ে সিরিজও জিতে নিল দক্ষিণ আফ্রিকা। তিন ম্যাচের এই সিরিজে প্রোটিয়ারা ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে যাওয়ায় জোহানেসবার্গে শেষ টেস্ট পাকিস্তানের জন্য ‘ডেড রাবার’। সেঞ্চুরিয়ন টেস্টে হারের পর কেপটাউনে ঘুরে দাঁড়ানোর সুযোগ ছিল পাকিস্তানের। প্রথম ইনিংসে ১৭৭ রানে অলআউট হয় সরফরাজ আহমেদের দল। এরপর নিজেদের প্রথম ইনিংসে দক্ষিণ আফ্রিকার ৪৩১ রানই ম্যাচে দুই দলের মধ্যে পার্থক্য গড়ে দিয়েছে।