ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, টুইটার সহ জনপ্রিয় সোশ্যাল অ্যাপ ব্যবহার করলে দিতে হবে কর উগন্ডার নাগরিকদের

0
311

সবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, টুইটার, ইন্সটাগ্রাম…। আর যেসব জনপ্রিয় সোশ্যাল অ্যাপ রয়েছে, তা ব্যবহার করলে কর গুনতে হবে উগন্ডার নাগরিকদের। এমনই আইন জারি করল ইওয়েরি মসুভেনি সরকার। শুধুই সোশ্যাল অ্যাপ নয়, মানি-অ্যাপের ক্ষেত্রেও একই নিয়ম বলবত্ করা হয়েছে। গত ১ জুন থেকে সোশ্যাল মাধ্যমে সময় কাটালে প্রতি দিন ২০০ শিলিংস  করে গ্যাঁটের কড়ি খরচ করতে হচ্ছে সে দেশের নাগরিকদের।

সে দেশের এক নাগরিকের কথায়, “ঘুম থেকে উঠে দেখছি হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক কাজ করছে না। দু’দিন আগেই তো ১০ জিবি ডেটা কিনেছিলাম। তাহলে…পরে মনে পড়ল ও, আজ তো ১ জুলাই। সোশ্যাল মাধ্যমে কর বসিয়েছে দেশ।” তবে, মসুভেনি সরকারের এই পদক্ষেপে রীতিমতো ফুঁসছে নেটিজেনরা। তাঁরা অভিযোগ করছেন, ব্যক্তি স্বাধীনতায় হস্তক্ষেপ করছে সরকার। উগান্ডার ৪১ শতাংশ মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করেন।

গত মে মাসেই সরকার জানিয়েছিল, সোশ্যাল মাধ্যমে রাশ টানতে কড়া পদক্ষেপ করা হবে। সোশ্যাল মাধ্যমে নাগরিকদের সময় কাটানোয় হস্তক্ষেপ করতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে অর্থমন্ত্রককে। চলতি বছরে মে মাসে সোশ্যাল এবং মানি অ্যাপে কর বসানোর আইন পাশ হয়েছে উগান্ডা সংসদে। তবে, সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, কর বাবদ অর্থ খরচ করা হবে দেশের ইন্টারনেট প্রযুক্তির উন্নতিতেও।