গোলাপগঞ্জ হাটে বিক্রিত গরুর লিখাই না করাকে কেন্দ্র করে আহত-২

0
93

দিনাজপুরঃ    দিনাজপুরের বীরগঞ্জের গোলাপগঞ্জহাটে ১টি গরু বিক্রি করে না লিখেই নিয়ে যাওয়ার পথে ইজারাদার কর্তৃকআটক করাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষের হামলায় আহত-২।

বীরগঞ্জ উপজেলার গোলাপগঞ্জ হাটে ৯ জুলাই সোমবার বিকালে হাটে ১টি গরু বিক্রি করে না লিখে নিয়ে যাওয়ার পথে ইজারাদার নওশের আলী গেদার ভাইনিজপাড়া ইউনিয়নের কৈকুড়ী গ্রোমের মৃত আব্বাস আলীর পুত্র মেঃ আজাদ মিয়া (৫৭), ইজারাদার তুষার মিয়া ও মরিচা ইউনিয়ন পরিষদের সদস্য ইজারাদার জুয়েল ইসলাম আটক করে।

ইজারাদার তুষার মিয়া ও নওশের আলী গেদা জানায়, এঘটনাকে কেন্দ্র করেইজারাদার নওশের আলী ভাই আজাদ মিয়ার সাথে গরু লিখাইদার স্থানীয় আওলাকুড়ী গ্রামের আব্দুল মান্নানের কথা কাটা কাটি হলে স্থানীয় লোকজন তামিটিয়ে দেয়। পরে রাত্রী সাড়ে ৮টার দিকে ভাটিয়াদের হটাও আন্দলনের নামে ১টিপক্ষ অবস্থান নিয়ে ২০/৩০ জনের একটি দল ইজারাদার নওশের আলী গেদা, ভাই আজাদমিয়া ও ভাতিজা আজমীর এর উপর হামলা চালিয়ে আহত করে।

স্থানীয় লোকজনইজারাদার নওশের আলী গেদাকে তাৎক্ষনিক পার্শ¦বর্তী ১টি দোকানে নিয়েগিয়ে রক্ষা করলেও ভাই আজাদ মিয়া(৫৭) ও ভাতিজা আজম কবির আজমীর(২২) কেব্যাপক মারধর করে মারাত্মক আহত করে ও হাটের অফিস রুম ভাংচুর করে। সংবাদ পেয়ে বীরগঞ্জ থানার এসআই আমজাদ হোসেনের নেতৃত্বে ১দল পুলিশঘটনা স্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে নিয়ে আসে।

এ সময় প্রতিবেশীরা মুমুর্ষ অবস্থায় আহত আজাদ মিয়া ও ভাতিজা আজম কবির আজমীরকে উদ্ধারকরে বীরগঞ্জ সরকারী হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করলে তাদের শারিরিক অবস্থার অবনতি হলে হাসপাতাল কতৃপক্ষ দ্রুত দিনাজপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করে।

১০ জুলাই মঙ্গলবার দুপুরে আজাদ মিয়ার শারিরিক অবস্থার অবনতি হলে দিমেকহাসপাতালের কত্যর্বরত ডাক্তার রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মুমুর্ষঅবস্থায় প্রেরন করে। মরিচা ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতাহারুল ইসলাম চৌধূরী হেলাল ও নিজ পাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান এম.এ খালেক সরকার জানায়, গোলাপগঞ্জহাট টি বর্তমানে কেউ ইজারা না নেওয়ায় খাস টোল আদায় চলছে প্রশাষনের মাধ্যমে।

দুইজন সুস্থ না হওয়া পযর্ন্ত ২পক্ষকে নিয়ে আপোশ মিমাংশার কথাবার্তা চলছে। খাস টোল আদায় কমিটির সদস্য সচিব মরিচা ইউনিয়ন সহকারী ভুমি কর্মকর্তা জানায়, কেউ ইজারা না নেওয়ায় নওশের আলী গেদা, ধনীর উদ্দিন, তুষার মিয়া ও জুয়েল ইসলামের মাধ্যমে খাস টোলের ইজারা আদায় করা হয়।

অপর দিকে খাস টোল আদায় কমিটির সভাপতি ও বীরগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ তোফাজ্জল হোসেন জানায়, ঘটনাটি অন্যদের মাধ্যমে আমি শুনেছি, তবে কেউ লিখিত অভিযোগ করেনি। এ রিপোট লেখা পযন্ত আজাদ মিয়ার শারিরিক অবস্থা আশংকা জনক ও মামলার প্রস্তুতি চলছে।