ঝিনাইদহে কমেছে পাটের আবাদ, মণ প্রতি পাটের মুল্যে২ হাজার টাকা করার দাবি কৃষকদের

0
390

আব্দুল্লাহ আল মামুন,ঝিনাইদহ: ঝিনাইদহে কমেছে পাটের আবাদ, মণপ্রতি পাটের মুল্যে ২ হাজারটাকা করার দাবি কৃষকদের। ন্যায্য মুল্য না পাওয়া আর প্রাকৃতিক দুর্যোগের কারণে ঝিনাইদহে কমেছে পাটের আবাদ। গতবছরের তুলনায় এ বছর আবাদ কমেছে ৮ হাজার ৬’শ ৯২ হেক্টরজমিতে। কৃষকদের অভিযোগ, পাটের যে মুল্য পাওয়া যায় তা দিয়েউৎপাদন খরচই ওঠে না। তাই প্রতিমন ২ হাজার টাকা করার দাবিতাদের।ঝিনাইদহ প্রতিনিধি আব্দুল্লাহ আল মামুন’এর পাঠানো তথ্য ওছবি নিয়ে প্রতিবেদন…..।দেশি পাটের পূর্ণাঙ্গ জীবন রহস্য আবিষ্কার, পাটজাত পণ্যেরদ্বিগুণ রপ্তানি বৃদ্ধি, পণ্যের মোড়কে পাটের ব্যাগবাধ্যতামূলকসহ ব্যবহারে বহুমাত্রিকতা এলেও ঝিনাইদহে কমেছেপাটের আবাদ। উৎপাদন খরচের সঙ্গে বাজার মূল্যের অসমতার কারণেতারা নিরাশ। চাহিদা অনুযায়ী দাম না পেয়ে এ বছর জেলার অনেকচাষী পাট চাষ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন। এছাড়াও রয়েছেপ্রাকৃতিক দুর্যোগ। চলতি মৌসুমের শুরুর দিকে বৃষ্টিপাতহওয়ায় পাটের চারা গজায় নি। যেটুকু জমিতে পাট হয়েছে তারফলনও ভালো হবে না। তাই এ মৌসুমে উৎপাদিত পাটের দামমনপ্রতি ২ হাজার টাকা করার দাবী কৃষকদের।বৃষ্টির কারণে পাট নষ্ট হয়ে যাওযায় ফলন কম হবে স্বীকার করে কৃষিবিভাগের কর্মকর্তা জানালেন, যেটুকু আবাদ হয়েছে তারসঠিক পরিচর্যা করার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে কৃষকদের।ভক্সপপঃ৪ জন কৃষকসট-জি এম আব্দুর রউফ উপ-পরিচালক, জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর, ঝিনাইদহ।পে:অফ: ঝিনাইদহ জেলার ৬ উপজেলায় গত বছর পাটের আবাদ হয়েছিল ২৪ হাজার ১’শ ৭২ হেক্টর। আর চলতি মৌসুমে আবাদ হয়েছে ১৫ হাজার ৪’শ ৮০ হেক্টর জমিতে।