খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা চেয়ারম্যানের উপর সন্ত্রাসী হামলা।

0
370

খাগড়াছড়ি প্রতিনিধি: খাগড়াছড়ি সদর উপজেলা চেয়ারম্যান চঞ্চুমনি চাকমা সন্ত্রাসীদের হামলায় আহত হয়েছেন। শুক্রবার(১৩ই জুলাই) দুপুর ১২ টার দিকে খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাবের সামনে এ হামলার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় পুলিশ সন্দেহভাজন ৪ জনকে আটক করেছে। জানা যায়, শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে খাগড়াছড়ি প্রেসক্লাবের সামনে ৫/৬ জন সন্ত্রাসী সদর উপজেলা চেয়ারম্যান চঞ্চুমনি চাকমার মোটরসাইকেলের গতিরোধ করে। এ সময় উপজেলা চেয়ারম্যান মোটর সাইকেলে থেকে নেমে দৌঁড়ে পালাতে চেষ্টা করেন। এসময় সন্ত্রাসীদের ছোঁড়া ইটের আঘাতে চঞ্চুমনি চাকমা রাস্তায় পড়ে যায়। ঘটনাস্থলের পাশে থাকা টহল পুলিশ তাৎক্ষনিক পৌঁছে চঞ্চুমনি চাকমাকে উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে প্রেরন করে।মাথায় আঘাত লাগায় খাগড়াছড়ি সদর হাসপাতালের কর্তব্যরত ডাক্তার চঞ্চুমনি চাকমাকে চট্টগ্রাম মেডিকেলে পাঠান। উল্লেখ্য, গত ৩ মে নানিয়ারচর উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেএসএস সংস্কারের সহসভাপতি শক্তিমান চাকমাকে তার কার্যালয়ের সামনে হত্যা করে উপজাতীয় সন্ত্রাসীরা। এরপর দিন ৪ মে শক্তিমানের শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে যোগ দেয়ার পথে সন্ত্রাসীদের ব্রাশফায়ারে ইউপিডিএফ ডেমোক্রাটিক গ্রুপের সভাপতি তপন জ্যোতি চাকমাসহ ৫ জনকে হত্যা করে উপজাতীয় সন্ত্রাসীরা। এ দুই হত্যাকাণ্ডের জেএসএস সংস্কার ও ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিকের পক্ষ থেকে ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপকে দায়ী করা হয়েছিল। ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপ সমর্থিত খগড়াছড়ি সদর উপজেলা চেয়ারম্যান চঞ্চুমণি চাকমা উল্লিখিত দুই হত্যাকাণ্ডেরই এজহারভূক্ত আসামী। এ ঘটনার পর পরই খাগড়াছড়ি শহরে নিরাপত্তা ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে। শহরের বিভিন্ন স্থানে পুলিশ তল্লাসি চৌকি বসিয়েছে।