দৌলতদিয়া ঘাটে ঈদ ফেরত কর্মমুখী যাত্রীদের চাপ

0
11

 

 

দেশের দক্ষিণাঞ্চলের ২১ জেলার ঈদে নাড়ীর টানে বাড়ী ফেরা কর্মমুখী মানুষ ছুটি শেষে কর্মস্থলে ফিরে যাচ্ছে। রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া ঘাট হয়ে পদ্মা নদীতে স্পীড় বোর্ড, লঞ্চ ও ফেরী যোগে কর্মমুখী যাত্রীরা পারাপার হচ্ছে।
শনিবার দুপুর থেকেই রাজবাড়ীর গোয়ালন্দ উপজেলাধীন দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে দৌলতদিয়া ঘাট প্রান্তে কর্মমুখী মানুষের ঢল চোখে পড়ে। এতে করে ঘাট এলাকায় দেখা গিয়েছে থেমে থেকে যানবাহনের যানজট।
বিআইডবিটিসি’র দৌলতদিয়া ঘাট অফিস সূত্রে জানা গেছে, ঈদকে বাড়ী ফেরা কর্মমূখী মানুষ ও যানবাহন পারাপারে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটের দৌলতদিয়া প্রান্তের ৬টি ঘাট দিয়ে ১১টি রো রো ফেরী ও ৯টি কেটাইপ, ইউটিলিটি ফেরী সার্বক্ষণিক চলাচল করছে। এছাড়া এ নৌরুটে বিকাল ৫টা নাগাদ ২৬টি লঞ্চ যাত্রী পারপার করছে বলে জানিয়েছেন বিআইডবিøটিআই’র আরিচা ঘাটের টি.আই মো. আফতার হোসেন।
শনিবার সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত দৌলতদিয়া ঘাট ঘুরে দেখা গেছে, সকাল ৬টা থেকে বেলা সাড়ে ১২টা পর্যন্ত দূরপাল্লার যাত্রীবাহী পরিবহনগুলোর চাপ কম থাকলেও দৌলতদিয়া ঘাট ছিলো অনেকটা ফাকা। এসময় প্রাইভেটকার, মাইক্রোবাস ও মোটরসাইল গুলো চাপ চোখে পড়ার মতো ছিলো। বিকাল ৫টার দিকে ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের দৌলতদিয়া ঘাট এলাকা থেকে প্রায় দুই কিলোমিটার অদূরে দৌলতদিয়া ইউনিয়ন পরিষদ পর্যন্ত যাত্রীবাস নদী পাড়ের অপেক্ষায় রয়েছে।
এসময় সাতক্ষীরা, খুলনা, যশোর, বেনাপোল, কুষ্টিয়া, ফরিদপুর, রাজবাড়ী থেকে ছেড়ে আসা একাধিক যাত্রীবাহী পরিবহনের চালকগণ ও যাত্রীরা জানান, বিগত বছরগুলোর চেয়ে এ বছর ঈদে দৌলতদিয়া ঘাটে যাত্রী নিরাপত্তায় পুলিশ প্রশাসন। অপর দিকে যানবাহনগুলোকে ফেরী পেতে বেশি সময় ঘাট এলাকায় অপেক্ষায় থাকতে হয়নি। তারা আরো বলেন, আজ শনিবার ঈদে কর্মমূখী মানুষের ঈদ ছ‚টি শেষ দিন হলেও ঘাট এলাকায় যানবাহনের চাপ দুপুর পর্যন্ত কম থাকলেও রাতে বাড়তে পারে যানবাহনের চাপ।
লঞ্চ ঘাট ঘুরে দেখা গেছে, লঞ্চ ঘাটের পল্টন ও যাত্রী পারাপারের ব্রীজে যাত্রীবাহী পরিবহন, বিভিন্ন স্থান থেকে আসা যানবাহনের যাত্রীদের ঢল, ঈদ আনন্দ শেষে কর্মস্থলে ফিরছেন তারা। রাজবাড়ী রোভার স্কাউটস্ এর ১০ সদস্য, গোয়ালন্দ ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ও জেলা পুলিশের সদস্যরা যাত্রী নিরাপত্তায় নিরলস ভাবে কাজ করে চলছেন। এসময় লঞ্চগুলোতে অতিরিক্ত যাত্রী নিয়ে নদী পাড় হতে তেমনটা দেখা যায়নি।
বিআইডবিøটিসি’র দৌলতদিয়া ঘাট শাখার ব্যবস্থাপক (বানিজ্য) আবু আব্দুল্লাহ জানান, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে যানবাহন ও যাত্রী পারাপারে ১৯টি ফেরী সার্বক্ষণিক চলাচল করছে। আবহাওয়া অনুক‚ল থাকলে দৌলতদিয়া ঘাট এলাকায় যানবাহনের যানজট হবে না বলেই তিনি আশা করেন। সকাল থেকেই ছোট গাড়ীগুলোর চাপ থাকলেও বিকালে ও রাতে বাড়তে পারে দূর পাল্লার যাত্রীবাহী যানবাহনের চাপ বৃদ্ধি পাবে।