গাইবান্ধায় অস্ত্র মামলায় সাবেক সাংসদ কাদের খানের যাবজ্জীবন কারাদন্ড

0
13

 

অবৈধভাবে অস্ত্র রাখার দায়ে গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের জাতীয় পার্টির সাবেক সাংসদ কর্ণেল (অব.) আবদুল কাদের খানের যাবজ্জীবন কারাদন্ড দিয়েছেন গাইবান্ধা স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল-১ এর আদালত। এ ছাড়া অবৈধভাবে গোলাবরুদ রাখার দায়ে একই আদালত কাদের খানের আরও ১৫ বছরের সশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেন। আজ মঙ্গলবার দুপুরে ওই আদালতের বিচারক দীলিপ কুমার ভৌমিক এই রায় দেন। এসময় আবদুল কাদের খান আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রাষ্ট্রপক্ষের কৌশুলি শফিকুল ইসলাম জানান, আদালতে উভয় অপরাধ প্রমাণিত হওয়ায় বিজ্ঞ বিচারক এই রায় দেন। কাদের খান একই আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় সাংসদ মনজুরুল ইসলাম লিটন হত্যা মামলার প্রধান আসামি।
মামলার বিবরণে উল্লেখ করা হয়, ২০১৬ সালের ৩১ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় সুন্দরগঞ্জের সর্বানন্দ ইউনিয়নের উত্তর সাহাবাজ মাষ্টারপাড়া গ্রামের নিজ বাড়িতে কয়েকজন দুর্বৃত্তের হাতে গুলিবিদ্ধ হন গাইবান্ধা-১ (সুন্দরগঞ্জ) আসনের আওয়ামী লীগ দলীয় তৎকালীন সাংসদ মনজুরুল ইসলাম লিটন। পরে তাকে রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হলে রাতেই চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরদিন ১ জানুয়ারি মনজুরুল ইসলাম লিটনের বড় বোন ফাহমিদা বুলবুল কাকলী বাদী হয়ে ৪-৫ জনকে অজ্ঞাত আসামী করে সুন্দরগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। এই হত্যা মামলার তদন্তে সাবেক সাংসদ কর্নেল (অব.) আবদুল কাদের খানকে মূল হোতা ও পরিকল্পনাকারি হিসেবে চিহ্নিত করা হয়।