নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে মাদ্রাসার ছাত্রী ধর্ষণের চেষ্টা । আটক শিক্ষক

0
56

সাইফুল ইসলাম নয়ন,নোয়াখালী সোনাইমুড়িঃ

নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে মাদ্রাসার ছাত্রীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মাদ্রাসার শিক্ষক আবদুল মমিন (৪৫) আটক করেছে পুলিশ।

পুলিশ জানায় উপজেলার বজরা ইউনিয়নের মাছুমপুর তালিমুল কোরআন নূরানী মাদ্রাসার শিক্ষক আবদুল মমিন (৪৫) নয় বছর বয়সী এক তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে গত ৭ জুলাই রোববার সকালে ক্লাস থেকে কৌশলে তার রুমে নিয়ে ধর্ষণ করার চেষ্টা করে ।

এ ঘটনা কাউকে না বলার জন্য ভয়ভিতি প্রদর্শন করে। পরদিন সকালে মেয়ে মাদ্রাসায় যেতে অনিহা প্রকাশ করলে তার মায়ের সন্দেহ হয়। পরে বিষয়টি ছাত্রী তার মাকে খুলে বলে।

এ ঘটনায় মেয়ের মা বাদী হয়ে বুধবার সকালে সোনাইমুড়ী থানায় মামলা দায়ের করেন ।

এক পর্যায়ে মঙ্গলবার দিবাগত রাত ১০টার দিকে এলাকাবাসী শিক্ষককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করে।

অভিযুক্ত শিক্ষক আবদুল মমিন নোয়াখালী জেলার চরজব্বর থানার পশ্চিম চরজব্বর গ্রামের মৃত জয়নাল আবেদীনের ছেলে। সোনাইমুড়ী থানার ওসি আবদুস সামাদ বলেন, অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।

সোনাইমুড়ী থানার ওসি আবদুস সামাদ জানান, অভিযুক্ত শিক্ষককে আটক করে কোর্টে প্রেরণ করা হয়েছে।