ফাইনালে সেই নিউজিল্যান্ড

0
19

 

 

সেমিফাইনালের আগমূহুর্ত পর্যন্ত ফেবারিট তত্তে¡র বিশ্লেষণে ভারত ও অস্ট্রেলিয়ার পাল্লাই ছিল ভারী। অথচ গ্রæপ পর্বের শীর্ষে থাকা দল দুটোই বাদ পড়েছে। নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ভারতের হারের সমাপ্তিটা লড়াইয়ের মাধ্যমে হলেও ইংল্যান্ডের বিপক্ষে অ্যারন ফিঞ্চের দলের হারটা হয়েছে একপেশে ও হতাশজনক। কিন্তু তাতে বিশ্বসেরা মঞ্চের মাহাত্ব বেড়েছে বৈ কমেনি এক রত্তিও! কেন না, ক্রিকেট বিশ্ব যে পেতে যাচ্ছে তাদের নতুন চ্যাম্পিয়ন, ষষ্ঠ চ্যাম্পিয়ন!

ক্রিকেটের মর্যাদার আসরে ওয়েস্ট ইন্ডিজ, ভারত, অস্ট্রেলিয়া, পাকিস্তান ও শ্রীলঙ্কা ব্যাতীত কারোরই শিরোপা জয়ের ইতিহাস নেই। এই পাঁচ দলের কেউই নেই এবারের ফাইনালে। সুযোগ এসেছিল ২০১৫ বিশ্বকাপে। কিন্তু নিউজিল্যান্ডকে সে ফাইনালে হেসেখেলে হারিয়েছিল অস্ট্রেলিয়া। তাই ১৯৯৬ সালের পর থেকে ২৩ বছর পের ফের একবার পালাবদল হচ্ছে ক্রিকেট সা¤্রাজ্যে, মুকুট উঠছে নতুন রাজার মাথায়। ১৯৭৫ সালে হওয়া বিশ্বকাপের প্রথম আসরের পর থেকে ষষ্ঠ চ্যাম্পিয়নের দেখা পেতে অপেক্ষা করতে হয়েছে ৪৪ বছর। শিরোপা উঁচিয়ে ধরার ১০ দলের লড়াই এখন ২ দলের। আগামীকাল ভারতকে বিদায় করা নিউজিল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়াকে বিদায় জানানো ইংল্যান্ড ক্রিকেটতীর্থ লর্ডসে লড়বে শিরোপা নিষ্পত্তির লড়াইয়ে। ক্রিকেটপ্রেমীরা পাবে নতুন চ্যাম্পিয়ন। লিখেছেন