আমাকে ষড়যন্ত্র করে ফাঁসানো হচ্ছে, আদালতে দাঁড়িয়ে মিন্নি

0
31

 

রিফাত শরীফ হত্যার ঘটনায় তার স্ত্রী আয়শা সিদ্দিকা মিন্নিকে রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। হত্যাকাণ্ডের বিষয়ে পুলিশ মিন্নিকে অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদ করতে চায়। তবে আদালতে বিচারকের এক প্রশ্নের জবাবে মিন্নি নিজেকে নিরাপরাধ দাবি করেছেন এবং স্বামীর খুনীদের ফাঁসির দাবি জানিয়েছেন।

বুধবার (১৭ জুলাই) বিকাল ৩টায় বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে মিন্নিকে হাজির করে সাত দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। বিচারক মোহাম্মাদ সিরাজুল ইসলাম গাজী তার পাঁচ দিনের রিমান্ড আবেদন মঞ্জুর করেন।

বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে উপস্থিত অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের দায়িত্বপ্রাপ্ত অতিরিক্ত কৌঁশুলী অ্যাড. সঞ্জিব দাস জানান, ‘মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আদালতের বিচারকের কাছে মিন্নিকে কী কারণে হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত মনে হয়েছে সেই বিষয়গুলো উপস্থাপন করেন। তদন্তকারী কর্মকর্তা আদালতকে জানান, রিফাত হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামি টিকটক হৃদয় আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন রিফাত হত্যাকাণ্ডের পরিকল্পনায় মিন্নি জড়িত ছিল।

এই আইনজীবী বলেন, “আদালতের বিচারক মিন্নিকে প্রশ্ন করেন, ‘এই মামলায় আপনার কোনও আইনজীবী না থাকায় আপনার বক্তব্য কী?’ এসময় মিন্নি বলেছেন, ‘রিফাত শরীফ আমার স্বামী। আমি আমার স্বামীর হত্যাকারীদের বিচার চাই। আমি এই হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত না। আমাকে ষড়যন্ত্র করে এই মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে।’

উল্লেখ্য জিজ্ঞাসাবাদের কথা বলে মঙ্গলবার মিন্নিকে পুলিশ লাইনে নিয়ে যাওয়া হয়। পরে রাতে তাকে গ্রেফতার দেখানো হয়।