আবারও উস্কানিমূলক মন্তব্য পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের

0
7

আবারও উস্কানিমূলক মন্তব্য পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের। স্বাধীনতা দিবসের আগে একের পর এক উস্কানিমূলক মন্তব্য করে যাচ্ছেন তিনি। রবিবার টুইট করে পাক প্রধানমন্ত্রীর মন্তব্য, নাৎসি আদর্শে অনুপ্রেরণায় আরএসএস তার আধিপত্য চালাচ্ছে। আরএসএস-এর এই আগ্রাসী ভূমিকায় তিনি শঙ্কিতও বলে জানান। পাশাপাশি, তাঁর বিস্ফোরক অভিযোগ, কাশ্মীরে গণহত্যা, কার্ফুর মতো ঘটনা ঘটছে, যার সঙ্গে নাৎসির কার্যকলাপের তুলনা করেন ইমরান খান।

ইমরান খান শুধুই নাৎসির সঙ্গে তুলনা আরএসএস-কে তুলনা করেননি, আন্তর্জাতিক মহলের হস্তক্ষেপেরও দাবি জানিয়েছেন। তাঁর কথায়, কাশ্মীরে যা চলছে, তা কি দেখতে পাচ্ছে বিশ্ব?

ইমরান খান শুধুই নাৎসির সঙ্গে আরএসএস-কে তুলনা করেননি, আন্তর্জাতিক মহলের হস্তক্ষেপেরও দাবি জানিয়েছেন। তাঁর কথায়, কাশ্মীরে যা চলছে, তা কি দেখতে পাচ্ছে বিশ্ব? অনুচ্ছেদ ৩৭০ বিলোপের পর পরই পাক সংসদে ইমরান খান হুঁশিয়ারি দিয়ে জানান, কাশ্মীর বিষয়ে আন্তর্জাতিক সব মহলে অভিযোগ জানাবে তারা। ৬ দিন পরে কোনও ফল হয়নি। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, রাশিয়ার মতো শক্তিধর দেশগুলি ভারতের পাশেই দাঁড়িয়েছে। চিনও ইঙ্গিত দিয়েছে, দুই দেশকে সংযত থাকার। আন্তর্জাতিক মহলে ভারতের স্পষ্ট বার্তা, কাশ্মীর সমস্যা তাদের অভ্যন্তরীণ বিষয়। সংবিধান মেনেই পদক্ষেপ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ইমরান খান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের সঙ্গে সাক্ষাত্ করে কাশ্মীর ইস্যুর হস্তক্ষেপের দাবি জানিয়েছিলেন। ডোনাল্ড ট্রাম্পও মন্তব্য করেছিলেন, এ বিষয়ে তাঁর হস্তক্ষেপের দাবি জানিয়েছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও। ভারত ডোনাল্ড ট্রাম্পের এই মন্তব্য খারিজ করে স্পষ্ট জানিয়ে দেয়, কাশ্মীর বিষয়ে বরাবরই দ্বিপাক্ষিক আলোচনায় অনড়। সেখানে তৃতীয় পক্ষের হস্তক্ষেপ চায় না। এরপর সুর নরম করে খোদ ওয়াশিংটন বিবৃতি দিয়ে জানায়, প্রয়োজন হলে মধ্যস্থতায় রাজি।