আফগানিস্তানে সন্ত্রাস দমনে ভারতেরও সাহায্য চাইলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প।

0
8

আফগানিস্তানে সন্ত্রাস দমনে ভারতেরও সাহায্য চাইলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তবে, একটু কটাক্ষের সুরেই সেই আবেদন করেন ট্রাম্প। আফগানিস্তানে সন্ত্রাসবাদ যে প্রায় কমে এসেছে, তার একশো শতাংশ কৃতিত্ব নিজের কাঁধেই নিচ্ছেন। অন্যান্য দেশ সন্ত্রাসবাদ দমনে সেভাবে সক্রিয় ভূমিকা নিচ্ছে না বলে অভিযোগ করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

বুধবার, ডোনাল্ড ট্রাম্প জানান, এক সঙ্গে আফগানিস্তান, রাশিয়া, ইরান, ইরাক, তুরস্ক যুদ্ধ চালাচ্ছে। কিন্তু আইসিস উত্খাতে আমেরিকা ১০০ শতাংশ কাজ করেছে। এ দিন ট্রাম্পের অভিযোগ, আফগানিস্তানের খুব কাছে রয়েছে পাকিস্তান এবং ভারত। কিন্তু সন্ত্রাস দমনের লড়াইয়ে কোনও ভূমিকা নেই ভারতের। পাকিস্তান খুব কাছে থাকা সত্ত্বেও লড়াইয়ে সামান্য ভূমিকা রয়েছে। কিন্তু ৭ হাজার মাইল দূরে থেকে আমেরিকা লড়াই চালিয়ে যাচ্ছে।

এ দিন সন্ত্রাস ইস্যুতে ইউরোপীয় দেশগুলিকেও কাঠগড়ায় দাঁড় করান ডোনাল্ড ট্রাম্প। স্পষ্ট ভাষায় বুঝিয়ে দেন, যে সব জঙ্গিদের বন্দি করা হয়েছে, তাদের ভরনপোষণ নিক সংশ্লিষ্ট দেশগুলি। বিশেষ করে জার্মানি এবং ফ্রান্সের নাগরিক তারা। তিনি বলেন, “আমরা তাদের বিরুদ্ধে লড়ব। তাদের গ্রেফতার করব। কয়েক হাজার জঙ্গি বন্দি করা হয়েছে। তাদের দায়িত্ব নিক সংশ্লিষ্ট দেশগুলি।” ট্রাম্প আরও বলেন, “গুয়ান্তানামোয় তাদের ৫০ বছর আটকে রেখে খাওয়াতে পড়াতে পারব না।”