জাবিতে শিক্ষার্থী মারধরের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল

0
11

 

 

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ে প্রশাসনের অপরিকল্পিত মাস্টারপ্ল্যানের প্রতিবাদে ও দুর্নীতির বিরুদ্ধে আন্দোলনে অংশগ্রহণ করার দায়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সোহায়েব বিন মাসুদকে মারধরের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল করেছে ছাত্রফ্রন্ট (মার্ক্সবাদী) বিশ্ববিদ্যালয় শাখা।

রোববার (১ সেপ্টেম্বর) বেলা সাড়ে ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবহন চত্বর থেকে বিক্ষোভ মিছিল শুরু হয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের গুরুত্বপূর্ণ সড়ক প্রদক্ষিণ করে অমর একুশ পাদদেশে সংক্ষিপ্ত সমাবেশের মধ্যে দিয়ে শেষ হয়।

ছাত্রফ্রন্ট আয়োজিত বিক্ষোভ মিছিলে সংহতি প্রকাশ করে অংশগ্রহণ করেন বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশন, বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ, জাহাঙ্গীরনগর সাংস্কৃতিক জোট ও বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন জাবি শাখার নেতাকর্মীরা।

মিছিল শেষে সমাবেশে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক জয়নাল আবেদীন শিশির বলেন, সোহায়েবের ওপর হামলার তীব্র নিন্দা জানাই। অবিলম্বে নির্যাতনকারীর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করছি।

বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন জাবি সংসদের সদস্য রাকিবুল রনি বলেন, এর আগে পত্রিকা মারফত জানতে পেরেছিলাম যৌক্তিক আন্দোলন দমাতে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন ছাত্রলীগের সঙ্গে মিটিং করেছে। সেই ঘটনার পরপরই সোহায়েবের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। অপরিকল্পিত উন্নয়ন ও লুটপাটের বিরুদ্ধে কথা বলার কারণে এই হামলা। প্রত্যেকটা হলে হলে অস্ত্রের মহড়া চলে। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন তাদের অনিয়মকে বৈধতা দিতে ছাত্রলীগকে ভ্যানগার্ড হিসেবে ব্যবহার করছে। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাই।

সোহায়েবের উপর হামলাকারীকে বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্থায়ী বহিষ্কারের দাবি জানিয়ে ছাত্র ফ্রন্ট (মার্ক্সবাদী) বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সভাপতি মাহাথির মোহাম্মদ বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের দুর্নীতি ও নিপীড়নের বিরুদ্ধে চলমান আন্দোলনের অংশ মশাল মিছিলে অংশগ্রহণ করার কারণে সোহায়েবকে নির্যাতন করা হয়েছে। যারা এই আন্দোলনকে ক্ষতিগ্রস্ত করতে চাচ্ছে আমরা তাদেরকে বলতে চাই তোমাদের লাঠি গুলি বন্দুক নিয়ে আসতে পারো তবে তোমাদের চেষ্টা ব্যর্থ হবে।

মিছিলে আরও বক্তব্য রাখেন জাহাঙ্গীরনগর সাংস্কৃতিক জোটের দপ্তর সম্পাদক মারুফ মোজাম্মেল, বাংলাদেশ ছাত্র ফেডারেশনের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সংগঠক অংশুমান রায়, ছাত্র ফ্রন্ট (মার্ক্সবাদী) বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাধারণ সম্পাদক সুদীপ্ত দে।