লক্ষ্মীপুরে গ্রাহকদের টাকা ফেরত দিলেন বিদ্যুৎ প্রতারকরা

0
13

 

অ আ আবীর আকাশ, লক্ষ্মীপুর:
“শেখ হাসিনার উদ্যোগ, ঘরে ঘরে বিদ্যুত” এ শ্লোগানটি সত্য প্রমাণ করলেন পল্লীবিদ্যুত সমিতির কর্মকর্তারা। হাতিয়ে নেয়া টাকা ফেরত পেয়ে আনন্দিত লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার চরবংশী ইউনিয়নের উত্তর চরবংশী গ্রামবাসী। আজ বিকালে উঠান বৈঠকের মাধ্যমে উত্তর চরবংশী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠে ৯২ জন গ্রাহককে অতিরিক্তি টাকা ফেরত দেয়া হয়েছে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন, লক্ষ্মীপুর পল্লীবিদ্যুত সমিতির জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) শাহজাহান কবীর, উত্তর চরবংশী ইউপি চেয়ারম্যান মোঃ হোসেন, ডিজিএম (কারিগরী) খান মোহাম্মদ বোরহান উদ্দিন, ডিজিএম রায়পুর শেখ মনোয়ার মোরশেদ, ফেনী প্রকল্পের নির্বাহী প্রকৌশলী ইদ্রিস আলী, সমিতি বোর্ডের সভাপতি মনিরুল ইসলাম প্রমুখ।
জানা যায়, প্রায় এক বছর আগে উত্তর চরবংশী ইউনিয়নের ৪নং ওয়ার্ডের ৯২ জন গ্রাহক বিদ্যুৎ সংযোগের জন্য প্রতিজন গ্রাহক এক হাজার পাঁচশত টাকা করে সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ টিটুর নিকট জমা দেন। এ সংবাদ গত ছয় মাস আগে বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ জানতে পারেন। পরে সাবেক ইউপি সদস্য মোঃ টিটু ও পল্লীবিদ্যুতের ঠিকাদার আলাউদ্দিন, জহির ও আমজাদকে রায়পুর পল্লীবিদ্যুত অফিসে ডেকে নিয়ে গ্রাহকের অতিরিক্ত টাকা ফেরত দেয়ার নির্দেশ দেন। এর প্রেক্ষিতে আজ আনুষ্ঠানিকভাবে কর্মকর্তারা উপস্থিত থেকে সরকার নির্ধারিত ৮৫০ টাকা রেখে বাকী টাকা ফেরত দেন।
এবিষয়ে দিনমজুর মোঃ আলী, নুরুল আমিন, নুর জাহান বেগমসহ কয়েকজন গ্রাহক জানান, টাকা ছাড়া বিদ্যুৎ লাইন সংযোগ দেয়া হয় তা আমরা জানতাম না। এ লাইন সংযোগের জন্য সাবেক মেম্বারকে এক হাজার পাঁচশত টাকা করে দিয়েছিলাম। এখন কর্তৃপক্ষ আমাদের অতিরিক্ত টাকা ফেরত এবং বিদ্যুৎ লাইন সংযোগ পেয়ে আমরা আনন্দিত।
লক্ষ্মীপুর পল্লীবিদ্যুত সমিতির জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) শাহজাহান কবীর বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ঘোষিত বিনামূল্যে ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। তাই বিদ্যুৎ দেয়ার নামে গ্রাহকদের কাছ থেকে আদায় করা অতিরিক্ত টাকা আনুষ্ঠানিকভাবে ফেরত দেয়া হয়েছে।