গণধর্ষণের মামলায় নাম নেই অভিযুক্ত এসআইয়ের!

0
11

 

যশোরের শার্শায় পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) ও সোর্সদের বিরুদ্ধে রাতের আঁধারে বাড়িতে ঢুকে এক গৃহবধূকে (৩২) গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। সোমবারের এ ঘটনায় অভিযুক্ত এসআই খায়রুলকে প্রত্যাহার করা হলেও মঙ্গলবার রাতে দায়ের করা ধর্ষণের মামলায় তাকে আসামি করা হয়নি। মামলার আগে ভুক্তভোগী নারীকে পুলিশ হেফাজতে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের নামে ভয়ভীতি দেখানো হয়েছে বলেও অভিযোগ পাওয়া গেছে।

যদিও কোতোয়ালি থানায় নিয়ে ধর্ষিতার মুখোমুখি করা হলে তিনি তিন জনকে চিনতে পারলেও ঐ এসআইকে চিনতে পারেননি বলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সালাউদ্দীন শিকদার এক প্রেসনোটে দাবি করেছেন। পরে অপর অভিযুক্ত তিন জনসহ চার জনকে আসামি করে মামলা করা হয়। ঐ তিন জনকেই গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনা তদন্তে অতিরিক্ত পুলিশ সুপারকে প্রধান করে তিন সদস্যবিশিষ্ট কমিটি গঠন করা হয়েছে। কমিটিকে আগামী তিনদিনের মধ্যে রিপোর্ট দিতে বলা হয়েছে।

পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার রাতে শার্শার চটকাপোতা এলাকার কামরুজ্জামান ওরফে কামরুল, লক্ষ্মণপুর গ্রামের আব্দুল লতিফ এবং আব্দুল কাদেরকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তাদের আদালতে সোপর্দ করে রিমান্ড চাওয়া হবে। অজ্ঞাত আসামিকে গ্রেফতারে পুলিশ সচেষ্ট রয়েছে। আর অভিযুক্ত এসআই খায়রুলকে প্রত্যাহার করে জেলা পুলিশ লাইন্সে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।