সব সূচকে পাকিস্তানকে পেছনে ফেলেছে বাংলাদেশ: তথ্যমন্ত্রী

0
12

 

খালেদা জিয়া মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে কলঙ্কিত করেছেন। জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের খুনি বলে মন্তব্য করেছেন মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রী আ.ক.ম. মোজাম্মেল হক।

ভারতের ত্রিপুরায় মুক্তিযোদ্ধা একাডেমি ট্রাস্ট্রের একটি অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসাবে যোগ দিতে শুক্রবার (৬ সেপ্টেম্বর) দুপুরে আগরতলায় যাওয়ার পথে আখাউড়া স্থলবন্দর নোম্যান্সল্যান্ডে সাংবাদিকদের কাছে এসব কথা বলেন।

এসময় তিনি বলেন, খালেদা জিয়া মুক্তিযুদ্ধকে বিতর্কিত করার চেষ্টা চালাচ্ছে।

মন্ত্রী বলেন, মুক্তিযোদ্ধাদের তালিকা হালনাগাদ কাজ প্রায় শেষ পর্যায়ে। এই মাসের মধ্যে তা অনুমোদন দেওয়া হবে। তাছাড়া আগামী জুলাই মাস থেকে সকল সুযোগ সুবিধা পাবে তারা।

৭১’মুক্তিযুদ্ধে অবদানের কথা স্বীকার করে ভারতের ত্রিপুরা রাজ্যের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রী আ.ক.ম. মোজাম্মেল হক।

ত্রিপুরায় সফরকালে মন্ত্রী ত্রিপুরায় মহান মুক্তিযুদ্ধের স্মৃতি বিজরিত স্থানগুলো পরিদর্শন করবেন। পাশপাশি তিনি ভারতে ত্রিপুরা মুখ্যমন্ত্রী বিপ্লব কুমার দেবের সাথেও বৈঠক করার কথা রয়েছে।

দু’দেশের সীমান্তের নোম্যান্সল্যান্ডে ফুল দিয়ে অভ্যর্থনা জানান ভারতের দিল্লিতে নিযুক্ত বাংলাদেশ হাইকমিশনের ডেপুটি হাইকমিশনার এটিএম রকিবুল হক। এসময় উপস্থিত ছিলেন ত্রিপুরায় নিযুক্ত বাংলাদেশ সহকারী হাইকমিশনার কিরীটি চাকমা, আগরতলা স্থলবন্দর সুপার নন্দী প্রমূখ।

এর আগে (৪ সেপ্টেম্বর) দুপুরে আখাউড়া-আগরতলা স্থলবন্দর সীমান্তপথে মুক্তিযোদ্ধা একাডেমি ট্রাস্ট্রের চেয়ারম্যান ড. আবুল কালামের নেতৃত্বে ৩৫ জনের মুক্তিযোদ্ধা প্রতিনিধি দল ত্রিপুরায় গেছে।