নরেন্দ্র মোদী হুমকি দেওয়ায় বিপাকে পাকিস্তানের গায়িকা

0
23

কুমির ও সাপ দেখিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী হুমকি দেওয়ায় বিপাকে পাকিস্তানের গায়িকা রাবি পীরজাদা। কাশ্মীর থেকে ভারত সরকার ৩৭০ অনুচ্ছেদ প্রত্যাহারের পর তেলেবেগুনে চটেছে ইসলামাবাদ। পাক নাগরিকও ভারতকে তোপ দেগেছেন। আর এক কদম এগিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে একটি ভিডিয় আপলোড করেন পাক পপ গায়িকা রাবি। ওই ভিডিয়োয় কয়েকটি সাপ দেখিয়ে মোদীকে হুমকি দিতে দেখা গিয়েছে তাঁকে।

গত ২ সেপ্টেম্বর একটি ভিডিয়ো টুইট করেন পাক গায়িকা রাবি পীরজাদা। সাপ ও কুমির নিয়ে ওই ভিডিয়োয় তাঁকে বলতে শোনা যায়, ভারতের সীমান্তে গিয়ে সাপ এবং কুমিরগুলিকে তিনি ছেড়ে দিয়ে আসবেন। ওই ভিডিয়োটি ভাইরাল হয় নেটদুনিয়ায়। এবার পাকিস্তানি গায়িকার বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করল পঞ্জাব প্রদেশের বন্য সংরক্ষণ দফতর। নিয়মের পরোয়া না করে একটি কুমির ও বেশ কয়েকটি সাপ নিজের কাছে রেখে দিয়েছেন পাক গায়িকা। তাঁর বিরুদ্ধে আইন ব্যবস্থা নেওয়া শুরু হয়েছে বলে দাবি করেছে একটি পাক সংবাদমাধ্যম। স্থানীয় কোর্টে একটি চালানও পেশ করা হয়েছে।

পাকিস্তানের বন্য সংরক্ষণ আইনে, বাড়িতে সাপ ও কুমির পোষা নিষিদ্ধ। সাপ ও কুমির পোষার লাইলেন্সও দেওয়া হয় না। বন্য সংরক্ষণ আইন ভেঙেছেন পাকিস্তানি গায়িকা। দোষী সাব্যস্ত হলে ২ বছরের জেল হতে পারে পাক গায়িকার।

বলে রাখি, জম্মু-কাশ্মীর থেকে ৩৭০ অনুচ্ছেদ প্রত্যাহারের পর থেকে আন্তর্জাতিকস্তরে ভারতকে বিপাকে ফেলার চেষ্টা চালিয়ে গিয়েছে পাকিস্তান। কিন্তু কোনও জায়গাতেই সাফল্য পায়নি ইসলামাবাদ। পাকিস্তানের অভ্যন্তরীণ মন্ত্রী এজাজ আহমেদও স্বীকার করে নিয়েছেন, কাশ্মীর নিয়ে পাকিস্তান আন্তর্জাতিক মহলে জোর ধাক্কা খেয়েছে। এর পিছনে দায়ী তাদের ভাবমূর্তি। পাকিস্তানকে দায়িত্বপূর্ণ দেশের চোখে দেখা হয় না।