পদত্যাগের আল্টিমেটাম প্রত্যাখ্যান করেছেন ইমরান খান

0
9

 

 

পাকিস্তানের অন্যতম বিরোধী দল জামিয়াত উলেমা-ই-ইসলাম (এফ) এর প্রেসিডেন্ট মাওলানা ফজলুর রেহমানের দেয়া পদত্যাগের আল্টিমেটামকে প্রত্যাখ্যান করেছেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

 

পাকিস্তানের গণমাধ্যম জিও নিউজ এক প্রতিবেদনে জানায়, উদ্ভূত সমস্যা সমাধানে ইমরান খান প্রশাসন ও বিরোধীদের মধ্যে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করছে গভার্নমেন্টস কমিটি। আর তাদের কাছেই ইমরান তার সিদ্ধান্তের কথা জানিয়েছেন।

 

ইমরান খান গভার্নমেন্টস কমিটিকে বলেছেন, তিনি কোনো অসাংবিধানিক কিংবা অগণতান্ত্রিক দাবি মেনে নেবেন না। আজাদি মার্চ-এর নামে যা করা হচ্ছে সেটাকে তিনি অসাংবিধানিক হিসেবেই মনে করেন। ইমরান খান একই সঙ্গে যেকোনো পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দিয়েছেন।

 

অবশ্য বিরোধীদের এই আন্দোলনের মধ্যেই ইমরান খানকে সমর্থনের ঘোষণা দিয়েছে পাকিস্তানের শক্তিশালী সামরিকবাহিনী। বাহিনীর পক্ষ থেকে জানানো হয়, তারা নির্বাচিত সরকার এবং দেশের সংবিধানকে সমর্থন করে।

 

এর আগে শুক্রবার সন্ধ্যায় ইসলামাবাদে আজাদি মার্চ নামের এক সরকারবিরোধী সমাবেশে বক্তব্য প্রদানের সময় মাওলানা ফজলুর রেহমান পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে বলেন, আপনি দুদিনের মধ্যে পদত্যাগ করুন। অন্যথায় আমরা অন্য কৌশল ভাবতে বাধ্য হব।

 

জেইউআই-এফের প্রধান বলেন, ইমরান খানের নেতৃত্বাধীন সরকার পদত্যাগ না করলে দেশের ভোটাররা আজাদি মার্চের পরবর্তী কর্মসূচি নির্ধারণ করবে। ভোটারদের ভোট চুরি হয়েছে। তাই তারাই নির্ধারণ করবে এই সরকারবিরোধী বিক্ষোভের কৌশল।

 

তিনি আরও বলেন, তারা (সরকার) বলছেন নওয়াজ শরিফ (পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ) ও জারদারি (পাকিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট আসিফ আলি জারদারি) দুর্নীতিগ্রস্ত। অথচ ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরামের প্রতিবেদন মতে, তাদের আমলেই দুর্নীতি দুই থেকে তিন শতাংশ বেড়েছে।