দুই সপ্তাহে পেঁয়াজের দাম ৪০ টাকায় নামবে

0
12

 

দেশের ইতিহাসে পেঁয়াজ তার সব রেকর্ড ছাড়িয়েছে। ২০ থেকে ২৫ টাকা দরের পেঁয়াজ ১৬০ টাকায় ক্রয় করতে বাধ্য হচ্ছেন ক্রেতারা। এদিকে বিভিন্ন ধরণের কর্মসূচি ও চেষ্টার পরেও দাম নিয়ন্ত্রণে আনতে পারছে না সরকার।

 

তবে এমন সময় আশার বাণী শোনালেন বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. সেলিম হোসেন। মঙ্গলবার সকালে চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে পেঁয়াজ ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বৈঠক শেষে তিনি বলেন, আগামী দুই সপ্তাহে পেঁয়াজের দাম ৪০ টাকায় নেমে আসবে।

 

সেলিম হোসেন বলেন, ‘মিসর থেকে পেঁয়াজ আমদানি হচ্ছে। ইতোমধ্যেই সেখান থেকে ৫০ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানির ঘোষণা দিয়েছে এস আলম গ্রুপ, ৯ হাজার টন আনছে মেঘনা গ্রুপ। এছাড়া দেশি পেঁয়াজের মৌসুমও শুরু হবে শিগগিরই। তাই সংকট থাকবে না।‘

 

তিনি আরও বলেন, ‘বাজারে এখনও যথেষ্ট পেঁয়াজ মজুত আছে। তাই দাম বাড়ার আশঙ্কা নেই। দুই সপ্তাহের মধ্যে পেঁয়াজের দাম ৪০ টাকার মধ্যে নেমে আসবে।’

 

তবে ওই বৈঠকে অংশ নেয়া ব্যবসায়ীরা জানান, চলতি সপ্তাহেই খুচরা বাজারে ৯৫-১০০ টাকা এবং পাইকারিতে ৮০-৮৫ টাকায় পেঁয়াজ বিক্রি করা হবে।

 

এর আগে গতকাল সোমবার দুপুর ১২টা থেকে বেলা ২টা পর্যন্ত বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো. সেলিম হোসেন নগরের খাতুনগঞ্জ, চাক্তাই ও রেয়াজউদ্দিন বাজার পরিদর্শন করেন। একই সময়ে জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মো. তৌহিদুল ইসলাম ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন।

 

পরিদর্শন শেষে উপসচিব সেলিম হোসেন আমদানি মূল্য, পরিবহন, শ্রমিক, মুনাফা ও বিবিধ খরচসহ সবকিছু বিবেচনায় নিয়ে মিয়ানমারের পেঁয়াজ পাইকারি বাজারে ৫৫-৬০ টাকা এবং খুচরা পর্যায়ে ৬৫-৭০ টাকা দরে বিক্রির নির্দেশ দেন। পাশাপাশি পেঁয়াজের দাব বৃদ্ধির পেছনে সিন্ডিকেটে জড়িত ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের নামের এই তালিকাও করা হয়।