না ফেরার দেশে চাঁপাইনবাবগঞ্জের বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব মোহিত কুমার দাঁ

0
508

এস এম সাখাওয়াত জামিল দোলন, চাঁপাইনবাবগঞ্জঃ   চাঁপাইনবাবগঞ্জ শহরের ইসলামপুর নিবাসী বিশিষ্ট সমাজসেবী, লেখক, অন্যতম সাংস্কৃতিকব্যক্তিত্ব হাসিনা গার্লস স্কুলের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক মোহিত কুমার দাঁ আর নেই। তিনি বৃহস্পতিবার রাত সোয়া ৯টায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ইহলোক ত্যাগ করেন।

মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিলো ৭৮ বছর।তাঁর মৃত্যুর খবরে চাঁপাইনবাবগঞ্জের সাহিত্যাঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে আসে। মৃত্যুর খবর শুনেলেখক, সাহিত্যিক, সাংবাদিক, আইনজীবী ও সাংস্কৃতিক কর্মীদের অনেকেই হাসপাতালে ছুটেযান। মৃত্যুকালে তিনি স্ত্রী, এক ছেলে (মিঠুন কুমার দাঁ, ঢাকায় চাকরীরত), এক মেয়ে (সমিষ্ঠাদাঁ মিঠু, নিলফামারীর ডিমলাতে বিবাহসূত্রে চাকরীরত), নাতি-নাতনিসহ অসংখ্য গুণগ্রাহীরেখে গেছেন। মোহিত কুমার দাঁ ১৯৪০ সালের ১৭জুন শৈল বালা দাঁ ও ভুদেব দাঁ দম্পতির ঘরে জন্ম গ্রহণ করেন।কর্মজীবনে শিক্ষকতার পাশাপাশি সাংবাদিকতার সাথে যুক্ত ছিলেন।

চাঁপাইনবাবগঞ্জের প্রথম প্রেসক্লাব গঠনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করছিলেন মোহিত কুমার দাঁ। চাঁপাইনবাবগঞ্জের সাংবাদিকতার পথিকৃতের একজন ছিলেন মোহিত কুমার দাঁ। ১৯৬০ সাল থেকে শুরু করে ১৯৭৩সালের ফেব্রুয়ারী মাস পর্যন্ত তিনি দৈনিক ইত্তেফাক পত্রিকার চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধিহিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

১৯৬৫ সালে জেলা পর্যায়ে শ্রেষ্ঠ সাংবাদিক নির্বাচিত হওয়ায়ইত্তেফাকের প্রতিষ্ঠাতা সম্পাদক তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়া তাঁকে একটি আগফা ক্যামেরাউপহার দিয়েছিলেন। শিক্ষকতার ক্ষেত্রেও মাধ্যমিক পর্যায়ে জেলার শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচিত হয়েছিলেন তিনি।

তিনি চাঁপাইনবাবগঞ্জে প্রথম শহীদ মিনার স্থাপনে একজন অগ্রনায়ক ছিলেন।বাংলাদেশ পূজা উদযাপন পরিষদ জেলা শাখার সাবেক সভাপতি, রাম সিতা মন্দিরের সাবেক সভাপতি,সার্বজনীন দূর্গা পূজা কমিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক, শ্রী শ্রী কৃষ্ণের জন্মাষ্টমীউদযাপন জেলা কমিটির সভাপতিসহ বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনের সাথে তিনিযুক্ত ছিলেন। তাঁর অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া শুক্রবার সকালে নবাবগঞ্জ শ্মশান ঘাটে অনুষ্ঠিত হয়।