পেঁয়াজ না খাওয়ার ঘোষণা নারীদের

0
17

 

পেঁয়াজের দাম বাড়ার প্রতিবাদ জানিয়ে আগামী ১০ দিন পেঁয়াজ না খাওয়ার ঘোষণা দিয়ে সিলেটে মানববন্ধন করেছেন নারীরা। গতকাল বিকালে সিলেট কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারের সামনে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

 

মানববন্ধনে নারীরা বলেন, প্রতিদিনই বাড়ছে পেঁয়াজের দাম। অসাধু ব্যবসায়ীরা সিন্ডিকেট করে পেঁয়াজের দাম বাড়াচ্ছে। এর প্রতিবাদস্বরূপ আগামী ১০ দিন তারা পেঁয়াজ কেনা ও পেঁয়াজ রান্না থেকে বিরত থাকার ঘোষণা দেন।

 

এতে মজুদদাররা সঠিক জবাব পাবে বলে তারা মন্তব্য করেন। পাশাপাশি এ দাবির প্রতি দেশের সব নারীকে একাত্ম হওয়ারও আহ্বান জানানো হয়।

 

দুই মাস ধরেই দেশে পেঁয়াজের বাজারে অস্থিরতা চলছে। দফায় দফায় দাম বেড়ে বর্তমানে ২৫০ টাকা কেজি বিক্রি হচ্ছে পেঁয়াজ। পেঁয়াজের এই সংকটের শুরু সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝিতে।

 

ভারত ১৩ সেপ্টেম্বর প্রথম পেঁয়াজ রপ্তানিতে ন্যূনতম মূল্য ৮৫০ ডলার নির্ধারণ করে দেয়। এরপরের ধাক্কা আসে ২৯ সেপ্টেম্বর, ভারত রপ্তানি পুরোপুরি বন্ধ করে দেয়। এ ধাক্কায় ৫০ টাকার পেঁয়াজ ১৫০ টাকা ছাড়ায়, যা বাংলাদেশের ইতিহাসে সর্বোচ্চ দর। এরপর লাফ দিয়ে পেঁয়াজের দর প্রতি কেজি ২৫০ টাকায় ওঠে চলতি মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহে ঘূর্ণিঝড় বুলবুলের আঘাতের পর। এরপর দাম কিছুটা কমেছিল। গত মঙ্গলবার থেকে দাম আবার বাড়ছিল।

 

সোমবার দেশি পেঁয়াজের দাম স্থিতিশীল থাকার কারণ জানান কয়েকজন ব্যবসায়ী। তাঁরা বলেন, পেঁয়াজ এখন নেই। তারপরও যেটুকু আছে তা আগামী সপ্তাহ দেড়েকের মধ্যে বিক্রি শেষ করতে হবে।

 

শ্যামবাজারের নবীন ট্রেডার্সের মালিক নারায়ণ চন্দ্র সাহা বলেন, শীত পড়ে গেছে। এখন দেশি পেঁয়াজ রেখে দিলে গাছ বেরিয়ে যাবে। ভালো দাম পেয়ে মানুষ অপরিপক্ব পেঁয়াজ বাজারে নিয়ে আসছে। সব মিলিয়ে কিছুদিনের মধ্যে সরবরাহ বাড়বে আশা করা যায়।