লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে তিন মাস ধরে বাড়ির চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা!

0
10

 

অ আ আবীর আকাশ, লক্ষ্মীপুর:

লক্ষ্মীপুরের রায়পুর উপজেলার সোনাপুর ইউনিয়নের রাখালিয়া গ্রামের ৬ নং ওয়ার্ডের সেলিম মিয়ার বাড়ির যাতায়াতের রাস্তা দীর্ঘ তিনমাস ধরে দখল করে রেখেছে একই এলাকার খাগো বাড়ির মৃত দীন মোহাম্মদের ছেলে আব্দুল মোতালেব।

 

জানা গেছে মোহাম্মদ সেলিমের বাবা মৃত সরাফত আলী ও আব্দুল মোতালেবের দাদা একই জমার জমি আলাদা দলিলে খরিদ করেন আজ থেকে ৫০ বছর পূর্বে। তারা আজ কেউই জীবিত নেই। যার সাবেক খতিয়ান নাম্বার ৪৩১, দাগ নাম্বার ১৪৯৩। হাল খতিয়ান নাম্বার ১৬২০, দাগ নাম্বার ৩৫১৭, মোট জমি ২৩ শতক রেকর্ড আছে।

 

আব্দুল মোতালেব ওয়ারিশ সূত্রে প্রাপ্ত অংশ বিক্রি করে শরাফত আলীর অংশটুকু জোরপূর্বক দখলের চেষ্টা করে দীর্ঘদিন ধরে। এই নিয়ে স্থানীয়ভাবে কয়েক দফা সালিশ হয়। সেলিম মিয়ার বাড়ির যাতায়াতের রাস্তা ব্যবহার করেন একই এলাকার মোঃ আবুল কালাম মোহাম্মদ ইসমাইল বকুল পাটোয়ারী সোহেল পাটোয়ারী শিউলি আক্তার রুবেল পাটোয়ারী সুমন পাটোয়ারী রহিমা বেগম ও নার্গিস আক্তার সহ তাদের পরিবারে থাকা ৫০ জন সদস্য সদস্য। এছাড়াও এই বাড়ির রাস্তায় ব্যবহার করেন বিভিন্ন স্কুল মাদ্রাসা ও বাজার গামে বহু নারী পুরুষ।

 

দীর্ঘ ৪০ বছর যাবৎ চলাচলের রাস্তা সম্পূর্ণ বেআইনিভাবে আব্দুল মোতালেব আউলি বেড়া দিয়ে জোরপূর্বক দখল করে নেয় বলে সেলিম মিয়া জানান।

 

দীর্ঘ তিনমাস ধরে আউলি বেড়া দিয়ে জমি অবৈধভাবে দখলে নেয়ার বিষয়ে  বক্তব্য নেয়ার জন্য আবদুল মোতালেবকে বারবার কল করেও মুঠো ফোনে পাওয়া যায়নি।

 

স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট কিসমত বলেন -দীর্ঘদিনের চলাচলের রাস্তা বন্ধ করে ঘর তোলা, আউলিয়া বেড়া দেয়া এটা অন্যায়। কেন মোতালেব তা করছে তা আমার বোধগম্য নয়। এক প্রশ্নের জবাবে তিনি আরো বলেন- জায়গা জমি নিয়ে যদি তর্ক-বিতর্ক থেকে থাকে তাহলে কাগজপত্র নিয়ে বসলেই ক্লিয়ার হয়ে যাবে।তবে রাস্তা বন্ধ করাটা অন্যায় হয়েছে। আমার পরিষদের মেম্বার হোসেন মাহাজন ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। সে আমাকে এখনো কোনো রিপোর্ট দেয়নি। দিলে আমি বিষয়টি আরও ক্লিয়ার হতে পারব।