প্রাথমিকে পাসের হার ৯৫.৫০%, জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩২৬০৮৮

0
33

 

প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে। এবার পাসের হার ৯৫ দশমিক ৫০ শতাংশ। এর মধ্যে জিপিএ-৫ পেয়েছে ৩ লাখ ২৬ হাজার ৮৮ জন শিক্ষার্থী।

 

মঙ্গলাবার দুপুর ১টায় নিজের মন্ত্রণালয়ে সংবাদ সম্মেলনে খুদেদের সমাপনীর ফলাফলের বিস্তারিত তথ্য প্রকাশ করেন গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন।

 

তিনি জানান, পিইসিতে পাসের হারে ছাত্রদের চেয়ে ছাত্রীরা এগিয়ে। ছাত্রদের পাসের হার ৯৫ দশমিক ৩৭ শতাংশ। অন্যদিকে ছাত্রীদের পাসের হার ৯৫ দশমিক ৬২ শতাংশ।

 

প্রতিমন্ত্রী আরও জানান, জিপিএ-৫ প্রাপ্তদের মধ্যে ছাত্র ১ লাখ ৪১ হাজার ৪৫১ জন ও ছাত্রী ১ লাখ ৮৪ হাজার ৬৩৭ জন।

 

গত ১৬ থেকে ২৪ নভেম্বর প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি শিক্ষা সমাপনীতে সারাদেশে ২৫ লাখ ৫৩ হাজার ২৫৭ জন খুদে শিক্ষার্থী অংশ নেয়।

 

এর আগে সকাল ১০টায় গণভবনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কাছে পঞ্চম ও অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থীদের পরীক্ষার ফলাফলের অনুলিপি তুলে দেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা প্রতিমন্ত্রী মো. জাকির হোসেন। এরপর বিভিন্ন বোর্ডের চেয়ারম্যানরা নিজ নিজ বোর্ডের ফলাফল প্রধানমন্ত্রীর হাতে তুলে দেন।

 

প্রকাশিত ফলাফল মোবাইল ফোনের খুদেবার্তার মাধ্যমেও জানা যাবে। যে কোনো মোবাইল ফোন থেকে DPE লিখে স্পেস দিয়ে থানা/উপজেলার কোড নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে ২০১৯ লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠিয়ে প্রাথমিক সমাপনীর ফল জানা যাবে।

 

আর ইবতেদায়ির ফল পেতে EBT লিখে স্পেস দিয়ে থানা/উপজেলার কোড নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে রোল নম্বর লিখে স্পেস দিয়ে ২০১৯ লিখে ১৬২২২ নম্বরে এসএমএস পাঠাতে হবে।

 

এই এসএমএস লেখার সময় সরকারি অথবা রেজিস্টার্ড বেসরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের EMIS কোড নম্বরের প্রথম পাঁচ সংখ্যা উপজেলা/থানা কোড হিসেবে ব্যবহার করতে হবে; যা প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইট, সংশ্নিষ্ট জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিস, উপজেলা/থানা শিক্ষা অফিস ও প্রাথমিক বিদ্যালয় থেকে জানা যাবে।

 

এছাড়া প্রাথমিক শিক্ষা অধিদপ্তরের ওয়েবসাইট এবং টেলিটকের ওয়েবসাইট থেকেও প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনীর ফল জানা যাবে।