ডাকসুতে আর নির্বাচন করবেন না ভিপি নুর

0
29

 

আগামী মাসেই শেষ হচ্ছে দীর্ঘ ২৮ বছরের পর অনুষ্ঠিত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনের মাধ্যম গঠিত ছাত্র সংসদের মেয়াদ।

 

আবারও হতে পারে নির্বাচন। তবে সুযোগ থাকলেও এই নির্বাচনে আর অংশগ্রণ করবেন না সংসদের বর্তমান সহ সভাপতি (ভিপি) নুরুল হক নুর।

 

যদিও সরকারি চাকরিতে কোটা ব্যবস্থার সংস্কারের দাবিতে গড়ে ওঠা বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের এই নেতার আবার নির্বাচন করার সুযোগ আছে। কারণ, এখনও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি সাহিত্যের নিয়মিত মাস্টার্সের শিক্ষার্থী ২৫ বছর বয়সী নুরুল হক।

 

তবে তার জায়গায় নতুন কাউকে দেখতে চান তিনি। নুর বলেন, ‘আমি ডাকসুতে নতুন নেতৃত্ব দেখতে চাই। আমি চাই নতুন কেউ এই পদে আসুক।

 

আর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন ছাত্র হিসেবে ছাত্রসংসদের সবচেয়ে বড় পদে আমি নির্বাচন করে জয়ী হয়েছি। তাই আবার একই পদে নির্বাচন করার ইচ্ছা আমার নেই।’

 

আলোচিত এই ভিপি বলেন, ‘নানা প্রতিকূলতা সত্ব্বেও ছাত্ররা ভোট দিয়ে আমাকে ভিপি নির্বাচিত করেছেন। আমি চেষ্টা করেছি তাদের পাশে দাঁড়াতে। আমি ভিপি হওয়ার আগেও সাধারণ ছাত্রদের দাবির প্রতি সোচ্ছার ছিলাম, ভিপি হওয়ার পরও ছিলাম, ভবিষ্যতেও থাকব।’

 

২৮ বছরের বেশি সময় পরে গত বছরের ১১ মার্চ ছাত্রদের সরাসরি ভোটে ডাকসুর নতুন নেতৃত্ব সৃষ্টি হয়। ভিপি ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক বাদে বাদবাকি পদগুলোতে ছাত্রলীগ নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়। এই দুটি পদে সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের দুই নেতা নুরুল হক ও আখতার হোসেন জয়ী হন।

 

যদিও ব্যাপক কারচুপির অভিযোগ এনে পুন:নির্বাচনের দাবি জানান সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের নেতারা।