হরিণাকুন্ডতে পাওনা টাকা চাওয়ায় শিক্ষককে পিটিয়ে জখম

0
2

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডতে পাওনা টাকা চাওয়ায় সোহেল রানা নামে এক শিক্ষককে পিটিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা।

রোববার সকাল ১০ টার দিকে উপজেলার রিশখালি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। আহত শিক্ষক সোহেল রানা ওই গ্রামের মৃত-জালাল উদ্দিনের ছেলে। তিনি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার উত্তর নারায়নপুর মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই শিক্ষক সোহেল রানা বলেন, ওই গ্রামের মিজান নামে এক ব্যক্তির সাথে তিনি ব্যবসা করতেন। গত প্রায় চার মাস আগে তাদের ব্যবসা পৃথক হয়ে যায়। তিনি তার কাছে ব্যবসায়িক ৮৮ হাজার টাকা পান। টাকা চাইলে মিজান তা না দিয়ে বিভিন্ন সময় হুমকী দেয়।

এ নিয়ে গত বৃহস্পতিবার বাজারে তাদের মধ্যে বাকবিতন্ডা হয়। রোববার সকালে তিনি গ্রামের স্কুলের সামনের রাস্তা দিয়ে হেটে যাওয়ার সময় মিজানের নেতৃত্বে কয়েকজন দুর্বৃত্ত তার ওপর অতর্কিত হামলা চালায়। এ সময় তারা রাস্তার ওপর ফেলে বাঁশের লাঠি দিয়ে তাকে বেধড়ক পেটাতে থাকে। এ সময় ওই দুর্বৃত্তরা তাকে ইট দিয়েও শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে। পরে স্থানীয়রা ছুটে আসলে তারা পালিয়ে যায়।

এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত মিজানের মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে সেটি বন্ধ পাওয়া যায়। তবে স্থানীয় মাজেদ নামে একব্যক্তি জানান, শিক্ষক সোহেল রানা ও অভিযুক্ত মিজান একসাথে পাটকাঠির ব্যবসা করতেন। তাদের ব্যবসায়িক লেনদেনের বিষয়ে গত বৃহস্পতিবার বাজারে একটি শালিশি বৈঠক হয়। সেখানে গ্রামের একব্যক্তি ওই শিক্ষকের পক্ষ নিয়ে মিজানকে মারধর করে। ওই ঘটনার জেরেই রোববার মিজান তাকে মারধর করেছে বলেও জানান ওই ব্যক্তি।

থানার ওসি আবদুর রহিম মোল্লা বলেন, সংবাদ পেয়ে আমি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। আহত ওই শিক্ষক মামলা দিলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে।