একতরফা নির্বাচন বাস্তবায়ন করতেই মিথ্যা মামলায় বেগম জিয়াকে কারাগারে বন্দি রাখা হয়েছে-মির্জা ফখরুল ইসলাম

0
326

মাহনূর মাহা, স্টাফ রিপোর্টারঃ  একতরফা নির্বাচনের নীলনকশা বাস্তবায়ন করতেই মিথ্যা মামলায় বেগম জিয়াকে কারাগারে বন্দি রাখা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। শুক্রবার (০৭ সেপ্টেম্বর) সকালে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ মন্তব্য করেন। বেগম জিয়া গুরুতর অসুস্থ এবং তার জীবন সংকটাপন্ন বলেও দাবি করেন তিনি।

বিএনপি’র মহাসচিব বলেন, ‘বেগম জিয়া আজ অত্যন্ত অসুস্থ। আমরা পার্টির পক্ষ থেকে এবং বেগম জিয়ার আইনজীবীরা সরকারকে অবগত করছে। অথচ সরকার এই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়টিকে গুরুত্ব দিচ্ছে না। তাঁর স্বজনরা কারাগারে দেখা করে আমাদের যে বর্ণনা দিয়েছেন তাতে আমরা হতবাক নই। বরং বিস্মিত। এরপরেও সরকার তাঁর চিকিৎসার কোনো ব্যবস্থা করছেন না।

স্বজনদের উদ্ধৃতি দিয়ে তিনি জানান, ‘বেগম খালেদা জিয়ার বা হাত ও বাম পা অবশ হয়ে গেছে। অসহ্য ব্যথা অনুভব করছেন তিনি। এমন কি চেয়ারে বসে থাকতে পারেন না। আপনারা দেখেছেন হুইল চেয়ারে করে তথাকথিত আদালতে তাঁকে জোর করে নিয়ে যাওয়া হয়।’

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, ‘রাজনৈতিক প্রতিহিংসার কারণে বেআইনিভাবে তাঁকে আটকে রেখে হত্যা করার জন্য হীন প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে। অসুস্থ মানুষের বিচারকার্য পরিচালনা করা যায় না। এটা সম্পূর্ণ অমানবিক এবং সংবিধান পরিপন্থী। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে আমরা দেখা করে বেগম জিয়ার চিকিৎসার ব্যবস্থা করার আহ্বান জানাবো।’

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘সরকারি হাসপাতালে বেগম জিয়া যেতে চাই না এবং আমরাও তাঁকে সেখানে পাঠাতে চাই না। কারণ এই সরকারের কোনো বিশ্বাস নেই।’

তিনি বলেন, ‘বর্তমান সরকার একতরফা নির্বাচন করার জন্য এই প্রতিহিংসায় নেমেছেন। কিন্তু বাংলাদেশের জনগণ এবার তা হতে দিবে না।’