ভৈরবে দুর্বত্তের গুলিতে আওয়ামী লীগ সভাপতি গুরুতর আহত

0
314

মিলাদ হোসেন অপু, ভৈরবঃ   ভৈরবে প্রকাশ্যে দিনের বেলায়  দুর্বত্তের গুলিতে সাদেকপুর ইউনিয়নের ইউ পি মেম্বার আঃ মান্নান খাঁন গুরুতর আহত হয়েছে। আহত মান্নান ওই ইউনিয়নের ৮ নাম্বার ওয়াড আওয়ামী লীগের সভাপতি। ঘটনার সময় তিনি ভৈরবের বাসা থেকে ইউনিয়ন পরিষদের মাসিক সভায় অংশগ্রহন করতে যাচ্ছিল।

ঘটনাটি ঘটে  মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১১ টায় ভৈরবের সাদেকপুর ইউনিয়নের মৌটুপি গোদারা ঘাটের দরগা মসজিদ সংলগ্ন এলাকায়। ঘটনার পর পর আশেপাশের লোকজন আহত মান্নানকে প্রথমে কুলিয়ার চর হাসপাতালে এবং পরে বাজিতপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি করে। ডাক্তারগন জানিয়েছেন তার শরীরের বাম হাতের নিচে গুলিবিদ্ধ হয়েছে যা অপারেশন করতে হবে।

জানা গেছে ভৈরবের সাদেকপুর ইউনিয়নে দুটি পক্ষ দীর্ঘকাল যাবত মারামারি, ঝগড়া, সংঘর্ষ, হত্যার মত ঘটনা ঘটাচ্ছে এলাকায়। গত দুবছরে এই এলাকায় সংঘর্ষে ৫ টি হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটে। এসব ঘটনায় প্রায় ৩ শ বাড়ীঘর ভাংচুর লুটপাট আগুনের ঘটনাও ঘটেছে। এই ইউনিয়নের কর্তা বাড়ীর সাবেক চেয়ারম্যান তোফাজ্জল হক এবং সরকার বাড়ীর শেফায়েত উল্লা চেয়ারম্যান বাড়ীর মধ্য দীর্ঘকাল যাবত বিরোধে এসব ঘটনা ঘটছে।

গ্রামের আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করেই এসব ঘটনা বলে জানা গেছে। আজকের আহত মেম্বার মান্নান চেয়ারম্যান শেফায়েত উল্লার পক্ষের লোক বলে এলাকাবাসী জানায়। আজ ঘটনার সময় কে বা কারা, কার অস্র দিয়ে  তাকে পিছন থেকে গুলি করল এখনও জানা যায়নি। ঘটনার পর পর ভৈরব থানা পুলিশকে ঘটনাটি অবহিত করা হলে পুলিশ ঘটনাস্হলে পৌঁছে ঘটনাটি তদন্ত করছে।

সাদেক ইউ পি চেয়ারম্যান শেফায়েত উল্লাহ জানায় আজ ইউ পির মাসিক সভায় অংশ নিতে ইউনিয়ন পরিষদে আসার সময় দিনের বেলা প্রকাশ্যে দুর্বত্তরা  তাকে গুলি করে আহত করে। কে বা কারা তাকে গুলি করেছে আহত মান্নান সুস্হ হলেই বলতে পারবেন বলে তিনি জানান। তবে তিনি আরও জানান, আমাদের প্রতিপক্ষরাই তাকে হত্যা করতে এই ঘটনা ঘটিয়েছেন বলে তিনি মনে করেন।

ভৈরব থানার অফিসার ইনচার্জ মোঃ মোখলেছুর রহমান জানান, ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্হলে পুলিশ পাঠিয়েছি। তিনি বলেন সাদেকপুর ইউনিয়নের লোকজন দুভাগে বিভক্ত। দুটি গোষ্টির বিরোধ দীর্ঘদিনের। আজকের ঘটনাটি আদৌও গুলির ঘটনা কিনা তদন্ত করে অপরাধিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্হা নেয়া হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।