খাগড়াছড়িতে ইউপিডিএফ(গনতান্ত্রিক) এর সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত।

0
296

মনিরুল ইসলাম মাহিম,খাগড়াছড়িঃ খাগড়াছড়ি ইউপিডিএফ(গনতান্ত্রিক) প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করে।  খাগড়াছড়ি প্রেস ক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ইউপিডিএফ-গনতান্ত্রিক নেতৃবৃন্দ অভিযোগ করে বলেন, রাঙামাটির নানিয়ারচর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের ফলাফল প্রশ্নবিদ্ধ করতে এবং হত্যা মামলার আসামী ও চাঁদাবাজদের রক্ষা করতে ইউপিডিএফ প্রসীত গ্রুপ ষড়যন্ত্র চালাচ্ছে। জনবিচ্ছিন্ন হয়ে প্রসীত খীসার নেতৃত্বাধীন ইউপিডিএফ হত্যার রাজনীতির পথ বেছে নিয়েছে ।

পাহাড়ে সাম্প্রতিক কালের সংঘটিত হত্যাকান্ডগুলোকে প্রসীতের নেতৃত্বাধীন ইউপিডিএফ’র আভ্যন্তরীন কোন্দলের ফল বলেও দাবী করা হয় প্রেস ব্রিফিং-এ। মঙ্গলবার ১১ সেপ্টেম্বর দুপুরে খাগড়াছড়ি প্রেস ক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে এসব অভিযোগ উত্থাপন করেন, ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিক কেন্দ্রীয় কমিটির তথ্য ও প্রচার সম্পাদক মিঠন চাকমা। লিখিত বক্তব্যে অভিযোগ করে বলা হয়, গত ৯ সেপ্টেম্বর ঢাকার রিপোর্টাস ইউনিটির সম্মেলন কক্ষে নানিয়ারচর এলাকাবাসীর ব্যানারে যে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে সে ব্যাপারে এলাকাবাসী কিছুই জানেন না।

ইউপিডিএফ প্রসীত পক্ষের ওয়ারেন্টভুক্ত সন্ত্রাসীরা ঢাকায় ভুয়া ব্যানার ব্যবহার করে রাষ্ট্র ও জাতিসত্তা বিরোধী কার্যক্রম চালাচ্ছে। মূলত, নানিয়ারচর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে হেরে গিয়ে রাষ্ট্র ও নির্বাচন সংশ্লিষ্ট এজেন্টদের প্রশ্নবিদ্ধ করতে এবং উপজেলা চেয়ারম্যান শক্তিমান চাকমা ও ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিক’র প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি তপন চাকমার হত্যাকারীদের রক্ষা করতে তারা এসব অপপ্রচার চালাচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে সরকারে প্রতি অনুরোধ জানানো হয় সংবাদ সম্মেলন থেকে।

উল্লেখ্য চলতি বছরের ৩ মে প্রসীতের নেতৃত্বাধীন ইউপিডিএফ সন্ত্রাসীরা নানিয়াচর উপজেলা চেয়ারম্যান শক্তিমান চাকমাকে গুলি করে হত্যা করে। তার শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে যাওয়ার পথে খাগড়াছড়ি-রাঙামাটি সড়কের বেতছড়িতে একই সংগঠনের সন্ত্রাসীদের গুলিতে ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিকের কেন্দ্রীয় সভাপতি তপন জ্যোতি চাকমাসহ পাঁচজনকে গুলি করে হত্যা করা হয়। সংবাদ সম্মেলনে ইউপিডিএফ গণতান্ত্রিক কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য আলোকময় চাকমা উপস্থিত ছিলেন।