মাগুরায় ৬৫০টি মন্ডপে দুর্গাপূজা শুরু

0
102

মোঃ কাসেমুর রহমান শ্রাবন, মাগুরাঃ   সোমবার থেকে সনাতন ধার্মাবলম্বীদেরবড় উৎসব শারদীয় দুর্গাপূজা শুরু হয়েছে। এ বছর মাগুরা জেলারচার উপজেলায় প্রায় ৬৫০টি মন্ডপে দুর্গাপূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

জেলা পূজা উদযাপন পরিষদের সাধারণ সম্পাদক বাসুদেব কুন্ডুজানান, এ বছর জেলার চার উপজেলার মধ্যে মাগুরা সদরে ২২৫টি,শালিখায় ১৬২টি মহম্মদপুরে ১২৩টি এবং শ্রীপুর উপজেলায় ১৩৮মন্ডপে এ পূজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আলোক সজ্জা ও প্যান্ডেল সাজসজ্জার পাশাপাশি আইন শৃংঙ্খলা রক্ষাকারি বাহিনী, আনসার সদস্যসহ স্বেচ্ছসেবকরা তদাররিকর মাধ্যমে সার্বিকনিরাপত্তার দায়িত্ব পালন করছে। এ ছাড়া ভ্রাম্যমান আদালত ও জেলাপ্রশাসনের কার্যালয়ে নিয়ন্ত্রণ কক্ষ থেকে আইন শৃংঙ্খলার বিষয়টি দেখভাল করছে।

জেলার বিভিন্ন মন্ডপ ঘুরে দেখাগেছে প্রতিমা শিল্পিরা মনেরমাধুরী মিশিয়ে মা দুর্গাকে সাজিয়েছেন। মন্ডপগুলোতেআলোক সজ্জার পাশপাশি এ উপলক্ষে মেলায় এসেছে দোকানীরা।

মাগুরা সদর উপজেলার বাটিকাডাঙ্গা গ্রামের প্রতিমা শিল্পীমুকুল কুমার বৈদ্য জানান, এ বছর তিনি টাঙ্গাইল, রাজবাড়ী,মাগুরাসহ মোট ৭টি মন্ডপে প্রতিমা তৈরির কাজ করছেন।প্রতিটি মন্ডপে প্রতিমা তৈরির জন্য তিনি পারিশ্রমিকনিয়েছেন ১০ থেকে ১৫ হাজার টাকা। দীর্ঘ ৫০ বছর তিনিপ্রতিমা তৈরির কাজ করে আসছেন।

রাজবাড়ী জেলার বালিয়াকান্দী উপজেলার প্রতিমা শিল্পী বিরোন্দ্রনাথ বিশ্বাস জানান, দীর্ঘ বিশ বছর ধরে জেলা ও জেলার বাইরেপ্রতিমা গড়ার কাজ করে থাকেন। এ বছর তিনি মাগুরার শ্রীপুরউপজেলাসহ ১৭টি মন্ডপে প্রতিমা তৈরি করছেন।

তিনি জানান,প্রতিটি প্রতিমা তৈরির জন্য পারিশ্রমিক হিসেবে ১৫ থেকে২৫ হাজার টাকা পারিশ্রমিক পেয়েছেন।পূজায় ঘুরতে আসা সদরের কিতান্ত বিশ্বাস জানান, এবারেরপূজায় প্রতিমাগুলো অনেক ভাল হয়েছে। এছাড়া মেলায় ঘুরে খুবভাল লাগলো।

ভারত থেকে মাশির বাড়িতে বেড়াতে আসা লাবণ্য জানান, মাগুরার পূজার প্রতিমা ও লাইটিং বেশ ভাল হয়। আর এজন্য এবার পূজায় বাংলাদেশে আসলাম প্রতিমা দেখতে। আর লাইটিং ও প্রতিমা দেখে মনে হল বাংলাদেশে পূজা দেখতে আসা সার্থক হয়েছে।

এ বিষয়ে মাগুরার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার তারিকুল ইসলাম জানান, শান্তিপূর্ণভাবে পূজা উৎসব উদযাপন করার জন্য সব জায়গাতেই যথাযত নিরাপত্তার ব্যবস্থা জোরদার করা হয়েছে।