গোপালগঞ্জে স্বামী মারা যাওয়ায় স্ত্রী ও শ্বশুর আটক

0
97

সাইফুল ইসলাম, গোপালগঞ্জঃ   গোপালগঞ্জের কাশিয়ানী উপজেলার ঘোনাপাড়ায় কাজী আরিফ (৪২) নামে এক ব্যক্তি শশুর বাড়ীতে মারা যাওয়ায় হত্যার অভিযোগে স্ত্রী ও শশুরকে আটক করেছে কাশিয়ানী থানা পুলিশ।

ঘটনা সূত্রে জানা যায়, গোপালগঞ্জ সদর উপজেলার গেটপাড়ার মৃত মজিবর কাজীর ছেলে কাজী আরিফ ঘোনাপাড়া গ্ৰামের সহকারী অধ্যাপক এবাদুল মুন্সির মেয়ে ফারজানা আক্তার কেয়া (২৮) গত দশ বছর আগে এরা বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়। পারিবারিক জীবনে প্রথম দিকে ভালোই কাটছিলো তাদের জীবন।
৫ নভেম্বর সকালে উপজেলার ঘোনাপাড়া শ্বশুর বাড়ি থেকে কাজী আরিফের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। নিহতের পরিবারের দাবি তাকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে।

সহকারী পুলিশ সুপার হোসাইন মোহাম্মদ রায়হান ও কাশিয়ানী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোঃ আজিজুর রহমান ঘটনার প্রাথমিক তদন্ত করে সাংবাদিকদের জানান, রোববার রাতের কোনো এক সময় কাজী আরিফকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য তাঁর স্ত্রী কেয়া ও শ্বশুর এবাদুল ইসলামকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। তবে হত্যার বিষয়ে এখনই সব কিছু বলা সম্ভব হচ্ছে না। ময়না তদন্তের জন্য লাশ সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট না পাওয়া পর্যন্ত সত্যতা নিশ্চিত করা যাচ্ছে না।

অন্যদিকে নিহতের স্ত্রী কেয়া বেগমের বলেন, তার স্বামী কাজী আরিফ গভীর রাতে আহত ও অসুস্থ অবস্থায় বাড়ি ফেরেন। মঙ্গলবার সকাল ৬ টার দিকে আমার বাপের বাড়ি মারা যায়।