জয়পুরহাটে ভাতিজা বৌ ও ভাতিজার বিরুদ্ধে মানহানি মামলা

0
117

রেজাউল করিম রেজা, জয়পুরহাটঃ   জয়পুরহাট জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক, দৈনিক জয়পুরহাট খবরের সম্পাদক ও প্রকাশক, এস এম সোলায়মান আলীর বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগের মামলা খারিজ হওয়ায় ভাতিজা বৌ ও তার স্বামী শাহজাহান আলীর বিরুদ্ধে ১০ কোটি টাকা মানহানি মামলা দায়ের করেছেন। জয়পুরহাট জেলা বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল মাজিস্ট্রেট ক অঞ্চল আমলী আদালতে এ মামলা দায়ের করেন। মামলা নং ২০৮পি/১৮- ধারা ৪৯৯/৫০০।

মামলার বিবরণে জানা যায় গত ১৯/০৯/২০১৭ তারিখে জয়পুরহাট জেলা বিজ্ঞ সিনিয়র জুডিশিয়াল মাজিস্ট্রেট ক অঞ্চল আমলী আদালতে ১৫০পি/১৭ – ৩৬৪/৩২৩/৩৫৪/৩০৭/৪২০/৪০৬/৫০৬ (।।) ধারায় একটি মামলা করেন জাহানারা বেগম, সাক্ষী ছিলেন তার স্বামী শাহাজান আলী। দীর্ঘ সময় মামলাটি তদন্তের পর জয়পুরহাট থানার তদন্ত কর্মকর্তা মামলার্টি তদন্ত প্রতিবেদন আদালতে প্রদান করেন।

গত ৩০/০৮/২০১৮ তারিখে বিজ্ঞ আদালত মামলাটি মিথ্যা মর্মে খারিজের আদেশ দেন। সে সময় এস এম সোলায়মান আলীর বিরুদ্ধে বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হয়। এতে করে সামাজিক ভাবে এস এম সোলায়মান আলীর মর্যাদা ক্ষুণœ ও লোক সমাজে হেয় পতিপন্ন হয়েছে।এর পর ৮/১১/২০১৮ তারিখে এস এম সোলায়মান আলী বাদী হয়ে ১০ কোটি টাকা ক্ষতি সাধন হয়েছে মর্মে মোছাঃ জাহানারা বেগম, তার স্বামী মোঃ শাহজাহান আলী সাং- বিশ্বাস পাড়া, কবরস্থান রোড, থানা ও জেলা জয়পুরহাট ২জনকে আসামী করে মানহানি মামলা দায়ের করেছেন।উল্লেখ্য যে, জাহানারা বেগম ও শাহজাহান আলীর কলেজ পড়ুয়া মেয়েকে পুলিশের কনস্টেবল পদে চাকুরি নিয়ে দিবেন বলে এস এম সোলায়মান আলীর ৭ লাখ টাকা গ্রহণ করেছিলেন।

চাকুরি দিতে না পারায় টাকা ফেরতের জন্য এস এম সোলায়মান আলীর বিরুদ্ধে ২০১৭ সালে এ মামলা দায়ের করেছিল মামলার বাদী জাহানারা বেগম, এস এম সোলায়মান আলীর ভাতিজা বৌ ও শাহজাহান আলী তার আপন ভাতিজা।এ ব্যাপারে মামলার বিবাদী শাহজাহান আলীর সঙ্গে মোবাইল ফোনে বার বার যোগাযোগ করলেও তিনি ফোন রিসিভ করেন নি।

মামলার বাদী এস এম সোলায়মান আলী মুঠোফোনে বলেন, আমার ভাতিজা তার স্ত্রী কে দিয়ে ২০১৭ সালে আমার বিরুদ্ধে মিথ্যা মামলা করেছিল। সে সময় বিভিন্ন পত্র-পত্রিকায় সংবাদ প্রকাশিত হওয়ায় সমাজে আমার মান-সম্মান ক্ষুণœ করায় আমি এ মামলা দায়ের করেছি।