ইভিএম কেন্দ্রগুলোতে সেনাবাহিনী মোতায়েনের কথা ভাবছেন নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

0
60

সাজ্জাদ হোসেন স্টাফ রিপোর্টারঃ  আসন্ন নির্বাচনে যেসব কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করা হবে সেখানে সেনাবাহিনী মোতায়েনের কথা ভাবছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের সচিব হেলালুদ্দীন আহমদ সাংবাদিকদের বলেন, নির্বাচনে যেসব কেন্দ্রে ইভিএম ব্যবহার করা হবে, সেখানে সশস্ত্র বাহিনী মোতায়েন থাকবে। তবে এ বিষয়ে এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি। আমরা সশস্ত্র বাহিনীকে অনুরোধ জানাবো। এর আগে তাদের ইভিএম পরিচালনার প্রশিক্ষণও দেয়া হবে।

সচিব বলেন, আগামী ১২ নভেম্বর ইভিএম নিয়ে জাতীয় পর্যায়ে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ইভিএম মেলা হবে। ইসি রাজনৈতিক দলগুলোকে এই সম্মেলনে আমন্ত্রণ জানিয়েছে। তারা যদি তাদের টেকনিক্যাল টিম দিয়ে ইভিএম পর্যবেক্ষণ করতে চায়, তা পারবেন। জোটগতভাবে নির্বাচনের তথ্য দিতে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সময় বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন, এমন প্রশ্নের জবাবে সচিব বলেন, ‘গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ অনুযায়ী ১১ নভেম্বরের মধ্যে দলগুলোকে জোটের তথ্য ইসিতে দিতে হবে। এক্ষেত্রে জোটের তথ্য না দিলে নিজ প্রতীকে নির্বাচন করতে হবে। আর সময় বাড়ানোর কোনো আবেদন এখনো আমরা পাইনি। নির্বাচন কমিশন চাইলে সময় বাড়াতে পারেন।

হেলালুদ্দীন আহমদ বলেন, আগামী মঙ্গলবার থেকে রিটার্নিং কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। এর তিনদিন পর কমিশন সহাকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের প্রশিক্ষণ দেবে।

ভোটের তারিখ পেছাতে বিএনপির দাবি সম্পর্কে তিনি বলেন, ‘নির্বাচন কমিশন একটি তফসিল দিয়েছেন। এখন পর্যন্ত ভোটের তারিখ পেছানোর কোনো চিন্তা নেই। তবে সবগুলো দল চাইলে নির্বাচন কমিশন সিদ্ধান্ত নেবে।’
আইন-শৃঙ্খলা পরিস্থিতি সম্পর্কে সচিব বলেন, প্রত্যেক রিটার্নিং কর্মকর্তা এবং আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীকে বলা হয়েছে, তারা এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেবে। সাতদিনের মধ্যে সকল প্রচার সামগ্রীও সরিয়ে ফেলতে বলা হয়েছে।