আমি এর বিরুদ্ধে আপিল করব

0
87

গণজাগরণ মঞ্চের মুখপাত্র ইমরান এইচ সরকারের মনোনয়নপত্র বাতিল করেছে নির্বাচন কমিশন। নির্বাচন কমিশন বলছে, ইমরানের মনোনয়নপত্রেন সংখ্যা নির্দিষ্ট সংখ্যক জনসমর্থনের তথ্য জমা না দেওয়ায় মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। তবে ইমরান তিন দিনের মধ্যে এর বিরুদ্ধে আপিল করতে পারবেন।
একই সঙ্গে ওই আসনে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মো. জাকির হোসেনের মনোনয়নপত্রও বাতিল করা হয়েছে।
রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় সূত্র জানায়, নির্বাচনে প্রার্থী হতে হলে সংশ্লিষ্ট নির্বাচনী আসনের মোট ভোটারের ন্যূনতম ১ শতাংশ ভোটারের সমর্থন থাকতে হয়। স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন প্রত্যাশী ইমরান এইচ সরকারের এ বিষয়ে ঘাটতি রয়েছে। তাই জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা তার মনোনয়নপত্রটি বাতিল বলে ঘোষণা করেছেন।
এ ছাড়া তথ্যে ভুল থাকায় আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী মো. জাকির হোসেনের মনোনয়নপত্রও বাতিল করা হয়েছে। তিনি রৌমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক আওয়ামী লীগের সাংসদ ছিলেন।
ইমরান এইচ সরকার প্রথম আলোকে বলেন, আমারসহ কয়েকজন স্বতন্ত্র প্রার্থীর মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। তালিকায় দেওয়া আমাদের সমর্থক ভোটারদের সংখ্যায় কোনো ঘাটতি নেই, হয়তো ক্রমিক সংখ্যায় ভুল থাকতে পারে যা সংশোধন করা যায়। আমি এর বিরুদ্ধে আপিল করব।
রিটার্নিং কর্মকর্তা সুলতানা পারভীন প্রথম আলোকে বলেন, কুড়িগ্রাম ৪ আসনে এ স্বতন্ত্র প্রার্থী ইমরানের জন সমর্থনের তথ্য সঠিক না থাকায় এবং অন্যান্য প্রার্থীদের ক্ষেত্রে তথ্যে ভুল থাকায় তাদের মনোনয়নপত্র বাতিল করা হয়েছে। তবে তারা আপিল করতে পারবেন ৩ দিনের মধ্যে।