নাটোরে ওলামায়ে কেরামদের ওপর হামলার অভিযোগ ।

0
100

নাহিদ হোসেন নাটোরঃ নাটোরের মারকাজ মসজিদে তাবলীগের পরামর্শ সভা চলাকালেসন্ত্রাসী হামলায় দুইজন আহত হওয়ায় ক্ষোভপ্রকাশ করে সংবাদসম্মেলন করেছেন নাটোর তাবলীগ জামায়াতের একাংশ। এইঘটনার জেলা দায়রা জজের মদদ রয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন তারা।বৃহস্পতিবার দুপুরে নাটোর প্রেসক্লাব মিলনায়তনে এইসংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিতছিলেন, কেন্দ্রীয় কাকরাইল কমিটির সদস্য মাওলানা মুফতিশফি কাশেমী, জেলা মারকাজের শুরা সদস্য মাওলানা আবুল কালামআজাদ, মাওলানা সিহাব উদ্দিন ও মাওলানা রফিকুল ইসলাম।লিখিত বক্তব্যে দাবী করা হয়, গত ১৯ জুন শহরের তেবাড়িয়ামসজিদে সাপ্তাহিক পরামর্শ সভা চলছিল। এ সময় সা’দ পন্থিশরিয়তুল্লা শেখ, তার ছেলে রিপন ও সালমানসহ সন্ত্রাসীরাপরিকল্পিতভাবে আক্রমন চালায়। এ সময় আহত মুফতি শফিকাছেমী ও মাওলানা আব্দুল আওয়াল আহত হলে তাদের চিকিৎসারজন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। তাদের ওপর আক্রমনের সময় সাদপন্থি জেলা ও দায়রা জজ রেজাউল করিম উপস্থিত ছিলেন। তার মদদেইএই আক্রমন করা হয়েছে বলে দাবী করেন তারা। বক্তাদের দাবী,মাওলানা সাদকে সরকার নিষিদ্ধ করেছেন। অথচ সৈয়দওয়াসিকুল ইসলাম কাকরাইল থেকে প্রত্যাখ্যাত হয়ে ঢাকারঅন্যস্থানে বসে সাদের, আর শরিয়ত উল্লা শেখ নাটোরে বসেওয়াসিকুলের প্রতিনিধিত্ব করছেন। তারা শান্তি প্রিয়তাবলীগ সদস্য হিসেবে দাবী করে আক্রমনকারীদের দৃষ্টান্তমূলকশাস্তি এবং সাদপন্থিদের কার্যক্রম বন্ধে কার্যকর পদক্ষেপ নিতেসরকারের প্রতি জোর দাবী জানান।