বড়াইগ্রামে ভিজিএফ কর্মসূচীর তিন ট্রাক পঁচা চাউল ফিরিয়ে দিলেন এমপি

0
361

নাহিদ হোসেন নাটোরঃ নাটোরের বড়াইগ্রামের বনপাড়াস্থ সরকারী খাদ্য গোডাউন থেকেভার্ন্যারেবল গ্রুপ ফিডিং (ভিজিএফ) কর্মসূচীতে খাওয়ারঅনুপোযোগী তিন ট্রাক পঁচা চাউল বিতরণের জন্য বিভিন্নইউনিয়নে সরবরাহ করার চেষ্টা করলে এতে বাঁধা প্রদান করেন জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও স্থানীয় সংসদ সদস্য অধ্যাপক আব্দুলকুদ্দুস।

রবিবার সকালে তিনি সরেজমিনে বনপাড়া খাদ্যগোডাউনে ভিজিএফ এর জন্য নির্ধারিত চাউলের মানপর্যবেক্ষণকালে পাবনার মুলাডুলি সরকারী গোডাউন থেকে আসানষ্ট হওয়া তিনটি ট্রাকের ৪৮ টন চাউলের সন্ধান পান।

পরে তিনিসেই ট্রাকসহ চাউল মুলাডুলি গোডাউনে ফেরত পাঠান এবংপাশাপাশি অফিসিয়াল প্রক্রিয়ার মধ্য দিয়ে চাউলগুলো ধ্বংস করারনির্দেশ প্রদান করেন। অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস এমপি জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাঈদের আগে দরিদ্রদের জন্য পরিবার প্রতি বিনামূল্যে ২০ কেজি করেভিজিএফ এর চাউল প্রদানের নির্দেশ দিয়েছেন। কিন্তু এ চাউল যদিখাওয়ার অনুপোযোগী হয় তবে তা হতো অত্যান্ত পরিতাপের বিষয়।সঠিক ওজনে চাউল প্রদান ও চাউলের মান ঠিক আছে কিনা তাগুরুত্বের সাথে দেখা হচ্ছে। এ চাউল বিতরণে কেউ দুর্নীতি করলেতাকে কোনভাবেই ছাড় দেয়া হবে না বলে তিনি সতর্ক বার্তাপ্রদান করেন।

এদিকে খাওয়ার অনুপোযোগী চাউল কেন বনপাড়া খাদ্য গুদাম পর্যন্তএসেছে জানতে চাইলে গোডাউনের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. রুহুলআমিন জানান, ‘ফাস্ট ইন, ফাস্ট আউট’ সিস্টেমে মুলাডুলি খাদ্যগোডাউন থেকে এই চাউল এসেছে। মূলত ৮ মাস আগে আমনমৌসুমে সংরক্ষণ করা চাউল এগুলো।

মুলাডুলি খাদ্য গোডাউনেরাজশাহী অঞ্চলের ৮টি জেলার চাউল সংরক্ষণ করা হয়। এ গুলো কোনএলাকার চাউল এটা ওই গোডাউন কর্তৃপক্ষ বলতে পারবে। মুলাডুলি খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ওমর ফারুকজানান, আমি এক মাস হলো এই খাদ্য গোডাউনে যোগদানকরেছি। এর আগের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা চাকরী থেকে অবসরে গেছেন।তবে কোয়ালিটি পরীক্ষা না করে গোডাউন থেকে চাউল সরবরাহ করাঠিক হয়নি বলে তিনি স্বীকার করেন।

তিনি এ ব্যাপারে তদন্তপূর্বক প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করবেন বলে সাংবাদিকদেরজানিয়েছেন। পরে বড়াইগ্রাম পৌরচত্বরে এমপি অধ্যাপক আব্দুল কুদ্দুস প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে ভিজি এফ কার্ডধারী ৩০৮১ পরিবারের মধ্যে মাথাপিছু ২০ কেজি করে চাউলবিতরণ কর্মসূচী উদ্বোধন করেন।