পেঁয়াজ সংকটের জন্য ভারতকে দায়ী করলেন বাণিজ্যমন্ত্রী

0
28

 

চলমান পেঁয়াজ সংকটের জন্য ভারতকে দায়ী করে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি বলেছেন, ‘ভারত আগে না জানিয়ে হঠাৎ্ পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেওয়ায় এ সংকট সৃষ্টি হয়েছে। তবে আমরা যে শিক্ষা পেলাম ভবিষ্যতে আর কখনও এ রকম সংকট হবে না।’

 

সোমবার (১৬ ডিসেম্বর) দুপুরে রংপুরের কাউনিয়ায় বিজয় দিবস উপলক্ষে আয়োজিত সভায় তিনি এসব কথা বলেন। কাউনিয়া উপজেলা প্রশাসন সভার আয়োজন করে। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা উলফুত আরা বেগম এতে সভাপতিত্ব করেন।

 

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেছেন, ‘দেশে লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে বেশি পেঁয়াজ উৎপাদনের উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ফলে আর পেঁয়াজ সংকটে পড়তে হবে না। ইতোমধ্যে নতুন পেঁয়াজ বাজারে আসা শুরু হয়েছে, কাজেই কিছু দিনের মধ্যেই এর দাম সহনীয় পর্যায়ে চলে আসবে।’

 

বাণিজ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমাদের দেশে পেঁয়াজ উৎপাদন হয় ২২ থেকে ২৩ লাখ টন। এরমধ্যে পঁচে যাওয়ায় পেঁয়াজ থাকে ১৭ থেকে ১৮ লাখ টন। ফলে আমাদের ৭-৮ লাখ টন ঘাটতি থাকে। এই ঘাটতির ৯০ ভাগ পেঁয়াজ ভারত থেকে আমদানি করা হতো। কিন্তু এবার ২৯ সেপ্টেম্বর ভারত হঠাৎ পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেয়। ফলে আমরা বিপদে পড়ে যাই। এ কারণে পেঁয়াজের হঠাৎ সংকট দেখা দেয়। তারা যদি আমাদের আগে জানাতো তাহলে আমরা এ সমস্যায় পড়তাম না।’

 

তিনি আরও বলেন, ‘যেহেতু শুধু ভারত থেকেই আমরা পেঁয়াজ আমদানি করতাম সে কারণে বিকল্প চিন্তা করিনি। কিন্তু তারা যে পেঁয়াজ রপ্তানি বন্ধ করে দেবে তা আমরা কখনও কল্পনা করিনি। অথচ ভারত থেকে গড়ে প্রতি মাসে ৭০ থেকে ৮০ হাজার টন পেঁয়াজ আমদানি করা হতো। ভারত এ পেঁয়াজ সরবরাহ করতো।’