আমি কিছুই জানিনা, ফোনে ওরা বললো- অপেক্ষা করেন, সব কালকে জানবেন- ড. কামাল হোসেন। 

0
91

বৈঠক চলছে গুলশানে। তাই এখন বৈঠকের বিষয়ে কিছু জানেন না বলে জানিয়েছেন গণফোরাম সভাপতি ও ঐক্যফ্রন্টের শীর্ষ নেতা ড. কামাল হোসেন।

তিনি বলেন, আমি কিছুই জানিনা, ফোনে ওরা বললো, আলোচনা চলছে, ভাল আলোচনা চলছে।’ শনিবার (১০ নভেম্বর) রাত ১০.৪০ এর দিকে বেইলি রোডে নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের এ কথা জানান ড. কামাল হোসেন।

এসময় তিনি জানান, আগামীকাল রোববার (১১ নভেম্বর) দুপুর একটায় জাতীয় প্রেসক্লাবে ঐক্যফ্রন্টের সংবাদ সম্মেলন ডাকা হয়েছে।

এসময় তিনি আরো বলেন, কোন সিদ্ধান্ত হয়েছে কিনা আমি জানিনা। শুধু ফোনে কথা হয়েছে।

কামাল হোসেনকে নির্বাচনে যাওয়ার বিশজয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান, সব কিছুই কালকে জানবেন। একটু অপেক্ষা করেন। আপনারা আজকে সব জেনে নিলেন, কালকে আর কি জানবেন।

এসময় তিনি আরো বলেন, সব নেতাদের সঙ্গে কথা বলা ছাড়া আমি কোন সিদ্ধান্ত জানাতে পারি না। তাই সবার সঙ্গে কথা বলে আগামীকাল দুপুরে সিদ্ধান্ত জানানোর বিষয় ঠিক করা হয়েছে।

এদিকে, নির্বাচনে যাওয়া না যাওয়া বিষয়ে দু’দিন পর সিদ্ধান্ত জানানো হবে বলে জানিয়েছেন লিবারেল ডেমোক্রেটিক পার্টির (এলডিপি) সভাপতি অবসরপ্রাপ্ত কর্নেল অলি আহমেদ। ২০ দলীয় জোটের বৈঠক শেষে শনিবার (১০ নভেম্বর) সন্ধ্যায় এ কথা জানান তিনি।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণের বিষয়ে গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত নিতে গুলশানে দলীয় চেয়ারপারসনের কার্যালয়ে ২০ দলীয় জোটের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

এর আগে  বিএনপি চেয়ারপারসনের প্রেস উইং সদস্য শায়রুল কবির খান জানান, প্রথমে সন্ধ্যায় বিএনপির সর্বোচ্চ নীতিনির্ধারণী ফোরাম স্থায়ী কমিটির সদস্যরা চেয়ারপারসনের গুলশানের রাজনৈতিক কার্যালয়ে বৈঠক করেন। পরে ২০ দলের বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বিএনপির জরুরি ওই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরের সভাপতিত্বে স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, জমিরউদ্দিন সরকার, মির্জা আব্বাস, নজরুল ইসলাম খান প্রমুখ।

এখন সবার মনে একটাই প্রশ্ন বিএনপি কি আদৌ নির্বাচনে অংশ নেবে নাকি আন্দোলনের পথে হাঁটবে।